বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ২১ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

সাফ নারী চ্যাম্পিয়নশিপ

শিরোপার লড়াইয়ে কাল নেপালের মুখোমুখি বাংলাদেশ

আপডেট : ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২২:৫৬

সাফ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে কাল নেপালের মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ। আসরের ফাইনালে  এই প্রথম পরস্পরের মুখোমুখি হচ্ছে দক্ষিণ এশিয়ার এই দুই দল। 

কাঠমুন্ডুর  দশরথ রঙ্গশালা স্টেডিয়ামে আগামীকাল বিকেল সোয়া পাঁচটায় মাঠে নামবে দুই দল। সাফের এই টুর্নামেন্টের ইতিহাসে এবারই প্রথম ভারতবিহীন ফাইনাল অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এর আগের পাঁচ আসরেই ফাইনালে উঠে শিরোপা নিজেদের করে নিয়েছিলো ভারত।  এবার সেমিফাইনালে নেপালের কাছে হেরে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিয়েছে পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন ভারত। এর আগে প্রথম সেমিফাইনালে ৮-০ গোলে ভূটানকে উড়িয়ে দিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করে লাল সবুজের মেয়েরা।

সাফের এই সোনালি ট্রফির জন্যই কাল মাঠে নামবে দুই অধিনায়ক। ছবি- বাফুফে

দুই দলেরই এর আগে ফাইনাল খেলার অভিজ্ঞতা থাকলেও শিরোপা ছুয়ে দেখা হয়নি একবারও। ফাইনালের অভিজ্ঞতার দিক দিয়ে অবশ্য এগিয়ে থাকবে নেপাল। এর আগে চারবার সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে উঠেছে নেপাল। আর চলতি সাফের ফাইনালসহ সাবিনারা খেলছে মাত্র দ্বিতীয় ফাইনাল। বাংলাদেশ এর আগেরবার ফাইনালে উঠছিলো ২০১৬ সালের শিলিগুড়িতে হওয়া সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে। 

এবার  প্রথমবারের মতো ভারতকে বাইরে রেখে ফাইনালে উঠেছে বাংলাদেশ এবং নেপাল। সেই হিসেবে নতুন চ্যাম্পিয়ন পেতে যাচ্ছে সাফ। গ্রুপ পর্বে বাংলাদশের কাছে ৩-০ গোলে হেরে যায় বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ভারত। এতে ভারতীয়দের মনোবল এতটাই দুর্বল হয়ে  যায়  যে সেমিফাইনালে এসে নেপালের কাছে  ১-০ গোলে হেরেই বাড়ি ফিরতে হয়।

রঙ্গশালায় কাল এমন উল্লাসে মেতে উঠতেই চাইবে সাবিনা-সানজিদারা। ছবি- বাফুফে

কালকের ম্যাচে পরিসংখ্যানে এগিয়ে থাকবে নেপালের মেয়েরাই। সাফে এর আগে তিনবার মুখোমুখি হয়েছে এবারের দুই ফাইনালিস্ট। দুইবার সেমিফাইনালে এবং একবার গ্রুপ পর্বে। তিনবারই সাবিনাদের হারিয়েছে নেপাল।

২০১০ সালে সাফের দ্বিতীয়  সেমিফাইনালে নেপালের কাছে ৩-০ গোলে হেরেছিল বাংলাদেশ।  ২০১৪ সালে সেমিফাইনালে ১-০ গোলে নেপালিদের কাছে হেরে যায় লাল সবুজের জার্সিধারীরা।  ২০১৯ সালে গ্রুপ পর্বে বাংলাদেশের হারের ব্যবধানটা ছিলো৩-০।

ঘরের মাঠের সমর্থকদের নিরাশ করেতে চাইবে না নেপালের মেয়েরাও। ছবি- সাফ

তবে এবার সাফের শুরু থেকেই দুর্দান্ত ফর্মে থাকা বাংলাদেশের মেয়েরা এসইব পরিসংখ্যানকে মাথায় নিতে চায় না। টুর্নামেন্টের শুরু থেকে প্রতিটা ম্যাচে প্রতিপক্ষকে যেভাবে উড়িয়ে দিয়েছে, সেই আত্মবিশ্বাস নিয়ে ফাইনালে খেলতে পারলে সাফের শিরোপাটা প্রথমবারের মতো ছুঁয়ে দেখা হয়ে যাবে এবারই।

ইত্তেফাক/এসএস