বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

পাকিস্তানে ছড়াচ্ছে পানিবাহিত রোগ, সাহায্য চায় জাতিসংঘ

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪:১০

পাকিস্তানের বন্যাদুর্গত শিশুদের জন্য প্রায় চার কোটি ডলার দেওয়ার আবেদন জানিয়েছে ইউনিসেফ। পাকিস্তানের  প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফও খাবার ও ওষুধ দেওয়ার আবেদন জানিয়েছেন।

 বন্যার পর পাকিস্তানে দ্রতই ছড়াচ্ছে পানিবাহিত রোগ। এতে দেশটির মানুষ মারা যাচ্ছেন। তাই পাকিস্তানের এখন জরুরি-ভিত্তিতে সাহায্য দরকার।  বন্যায় পাকিস্তানের এক তৃতীয়াংশ এলাকা পানির তলায় চলে গেছিল। 

শেহবাজ বুধবার নিউ ইয়র্কে বলেছেন, 'আমাদের সাহায্য দরকার। শিশুদের জন্য খাবার ও ওষুধ দরকার।' জাতিসংঘের বৈঠকে যোগ দিতে শেহবাজ নিউ ইয়র্কে গেছেন। 

প্রবল বৃষ্টির পর বন্যার তাণ্ডবে পাকিস্তান বিপর্যস্ত। এক হাজার পাঁচশ মানুষ মারা গেছেন। তিন কোটি ৩০ লাখ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন।  লাখ লাখ মানুষ এখনো খোলা আকাশের তলায় দিন কাটাতে বাধ্য হচ্ছেন। শয়ে শয়ে কিলোমিটার এলাকা এখনো পানির তলায়। পানি পুরোপুরি নামতে আরো ছয় মাস লাগবে।  

এই অবস্থায় কলেরা, ডায়রিয়া, ম্যালেরিয়া, ডেঙ্গু, চর্মরোগ ছড়াচ্ছে। ফলে মৃতের সংখ্যাও বাড়ছে।  ইউনিসেফের তরফে জানানো হয়েছে, 'আমরা অত্যন্ত চিন্তিত। বিভিন্ন রোগ ছড়াচ্ছে। মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। পাকিস্তানের সামনে দ্বিতীয় বিপর্যয় অপেক্ষা করে আছে।'

শিশুদের অবস্থা সবচেয়ে খারাপ

ইউনিসেফ জানিয়েছে, বন্যাদুর্গত শিশুদের সহায়তা করার জন্য তাদের তিন কোটি ৯০ লাখ ডলার চাই। এখনো পর্যন্ত প্রয়োজনের তুলনায় এক তৃতীয়াংশ অর্থ হাতে পেয়েছে ইউনিসেফ।  

ইউনিসেফ জানিয়েছে, ৩৪ লাখ শিশু ঘর হারিয়েছে। ৫৫০ জন শিশু মারা গেছে। যদি উপযুক্ত সাহায্য না পাওযা যায় তো আরো অনেক শিশু মারা যাবে।  

ইত্তেফাক/এসআর