বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ইউক্রেন যুদ্ধে আক্রান্তদের সহায়তা করছে যে অ্যাপ

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২০:১২

ইউক্রেনীয় প্রোগ্রামার ও ব্রিটেনের ডিজিটাল ম্যাপিং কোম্পানিগুলির তৈরি ‘জিস আর্টা' নামের গোপন অ্যাপ সেই উদ্যোগে সহায়তা করেছিল৷ এই টপ সিক্রেট অ্যাপ সম্পর্কে খুব কম তথ্য জানা যায়৷ তবে ডয়চে ভেলে এক কর্মীর একান্ত সাক্ষাৎকার নিয়ে সে বিষয়ে অনেক কিছু জানতে পেরেছেন৷

অনেকেই উবার ক্যাবের অ্যাপের কথা জানেন, যার সাহায্যে সবচেয়ে কাছের খালি ট্যাক্সিটি যাত্রীর লোকেশনে ডাকা যায়৷ জিস আর্টাও সেই প্রযুক্তিই কাজে লাগায়৷ রাশিয়ার কোনো লক্ষ্যবস্তু শনাক্ত করতে সেই অ্যাপ রেঞ্জফাইন্ডার ডিভাইস, স্মার্টফোন, ড্রোন, জিপিএস ট্রান্সমিটার ও বাণিজ্যিক স্যাটেলাইট ইমেজের তথ্য বিশ্লেষণ করে৷ এমনকি ন্যাটোর রাডারের তথ্যও কাজে লাগানো হয়৷

‘রিয়েল টাইম' অর্থাৎ কোনো বিলম্ব ছাড়াই সেই তথ্য সমন্বয় করা হয়৷ ফলে সব সময় তথ্য আপটুডেট থাকে৷ ল্যাপটপ বা স্মার্টফোন দিয়েই সেই তথ্যের নাগাল পাওয়া যায়৷ এরপর কোনো সেনা অফিসার কামান, ক্ষেপণাস্ত্র বা কম্ব্যাট ড্রোন কাজে লাগিয়ে যে কোনো দিক থেকে হামলা চালাতে পারেন৷ এত দ্রুত টার্গেটিং-এর কারণে প্রতিপক্ষ সহজে পালটা হামলা চালাতে পারে না৷

এই ব্যবস্থা কেন এত কার্যকর? নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জিস আর্টা কোম্পানির কর্মী ডিডাব্লিউ-কে বলেন, এই সিস্টেম স্থিতিশীল ও মজবুত৷ অনলাইন ও অফলাইন অবস্থাতেও কাজ করে৷

২০১৪ সালে রাশিয়া ক্রাইমিয়া উপদ্বীপ কব্জা করার সময়ও এই অ্যাপ কাজে লাগানো হয়েছিল৷ তার পরের বছরগুলিতে আরো উন্নতির ফলে সেটির ব্যবহার অনেক সহজ হয়ে উঠেছে৷

অনেক পরিস্থিতিতে চটপট এই অ্যাপ কাজে লাগানো যায়৷ এই অ্যাপের ব্যবহার যুদ্ধে অনেক সময় বাঁচায়৷ ২০ মিনিটের বদলে মাত্র এক মিনিটেই সামরিক বাহিনী লক্ষ্যবস্তুর টার্গেটিং করতে পারে৷ যুদ্ধে প্রতিটি মিনিটেরই মূল্য রয়েছে৷ জিস আর্টা কোম্পানির কর্মী বলেন, ‘‘অত্যন্ত দ্রুত যোগাযোগ নিশ্চিত করতে এবং অত্যন্ত নিখুঁতভাবে আঘাত হানতে পারলে আপনারই জয় হবে৷ শুরুতে কত ক্ষমতা ছিল, তাতে কিছু এসে যায় না৷ কারণ অনেক শক্তি, অসংখ্য কামান থাকলেও রিয়েল টাইম তথ্য না থাকলে সব আঘাত অর্থহীন হয়ে যাবে৷''

ইলন মাস্ক ইউক্রেনকে তার স্টারলিংক নামের স্যাটেলাইট সিস্টেম ব্যবহারের সুযোগ দিয়ে সেই অ্যাপের সাফল্য আরো বাড়িয়ে দিয়েছেন৷ স্টারলিংক অন্যান্য ব্রডব্যান্ড পরিষেবা কোম্পানির তুলনায় তিন গুণ দ্রুত ডাউনলোডের গতি সম্ভব করে৷

ইত্তেফাক/এএইচপি