বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

মৌলবাদীদের বিরুদ্ধে শেখ হাসিনাই একমাত্র ভরসা: ইন্ডিয়া টুডে

আপডেট : ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪:৪২

বাংলাদেশে ধর্ম নিরপেক্ষতা বজায় রাখতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে দেশের প্রতিষ্ঠিত একটি নাম এবং 'একমাত্র আশা' বলে বর্ণনা করা হয়েছে ইন্ডিয়া টুডেতে। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার পরিবারের অধিকাংশ সদস্যকে হারায় এক নৃশংস হত্যাকাণ্ডে। এই মর্মান্তিক ঘটনা নিয়েও বিরোধী দল শেখ হাসিনাকে কটাক্ষ করতে ছাড়ে না।

'বঙ্গবন্ধু পরিবারের মতো সন্ত্রাসের শিকারদের সর্বদা মৌলবাদী শক্তির বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য বিশ্বাস করা যায়'-এ কথাটি ১৯৮১ সালে দেশে ফেরার পর থেকে প্রমাণ করে যাচ্ছেন শেখ হাসিনা। রাষ্ট্রকে নেতৃত্ব দেয়ার ক্ষেত্রে তিনি রেখেছেন তার ছাপ।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) এবং মুজিব পরিবারের খুনিদের মধ্যে যেই জোট তা বেগম জিয়া সরকার গঠনের পর আরও স্পষ্ট হয়েছে। এই জোটের মাধ্যমে একটি গোষ্ঠীর কাছে প্রমাণ হয়েছে কট্টরপন্থীদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে 'যারা রাজনৈতিকভাবে লাভবান হয় তাদের বিশ্বাস করা উচিত নয়।'

ইন্ডিয়া টুডে'র ডিজিটাল বিভাগের নির্বাহী সম্পাদক দীপ হালদার তার সাম্প্রতিক বাংলাদেশ সফরের অভিজ্ঞতা বর্ণনা করে বলেছেন, দেশের হিন্দুদের জন্য 'শেখ হাসিনাই একমাত্র আশা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে প্রদান করা বক্তব্যে তৃণমূল পর্যায়ের হিন্দুদের সঙ্গে আলোচনার বিষয়টিকে আরও বিস্তৃত ও স্পষ্ট করেছে।

প্রিমিয়ারের জন্য জন্মদিনের শুভেচ্ছা প্রসারিত করে, অংশটি তৃণমূলে হিন্দুদের সাথে লেখকদের মিথস্ক্রিয়া সম্পর্কে আরও বিশদভাবে বর্ণনা করেছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

ঢাকায় ধানমন্ডি ৩২ এ বঙ্গবন্ধুর বাসভবনে সফর শেষে তিনি লেখেন, 'আমি এখানে ভ্রমণের মাধ্যমে এই সত্যটি বুঝতে পেরেছি যে, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, যিনি বাংলাদেশের জাতির পিতা। তার সঙ্গে গত বছর যেই মৌলবাদীরা তাণ্ডব চালিয়েছে তাদের কোন মতাদর্শের মিল নেই। 

তিনি লেখেন, 'আমি অনুধাবন করতে পারি, কিভাবে আপনার পরিবার এ দেশে ধর্মনিরপেক্ষতা বজায় রাখতে গিয়ে তার চরম মূল্য পরিশোধ করেছে এবং কিভাবে আপনি, প্রধানমন্ত্রী, চার দশকে ১৯ বার হত্যা চেষ্টা থেকে রক্ষা পেয়েছেন।

ইত্তেফাক/এএইচপি