মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

এক রাতে ৫ বাড়িতে ডাকাতি, গ্রেফতার ৭

আপডেট : ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৭:১৬

এক রাতে ৫ বাড়িতে ডাকাতির ঘটনায় আন্ত:জেলা ডাকাত দলের সাত সদস্যকে গ্রেফতার করেছে সিংগাইর থানা পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) রাতে সাভার, কেরানীগঞ্জ, আশুলিয়া ও সিংগাইর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে শুক্রবার আদালতে সোপর্দ করে সিংগাইর থানা পুলিশ। 

গ্রেফতারকৃতরা হলো- সিংগাইর উপজেলার খোয়ামুড়ি (টেকপাড়া) গ্রামের সোনা মিয়ার ছেলে মহিদুর ওরফে শামিম (৩০), সোনাটেংরা গ্রামের আদম আলীর ছেলে মোশাররফ মোল্যা (২৭), ওয়াইজনগর গ্রামের মৃত সাদেক খায়ের ছেলে কুদ্দুস খা (৫০), বকচর পশ্চিম পাড়ার তমেজ উদ্দিনের ছেলে ইসমাইল দেওয়ান (২৮), ওয়াইজনগর চকবাড়িরর মেজবান ওরফে পর্বতের ছেলে মো: আরমান (৩৫), ঝালকাঠির রাজাপুর থানার সাংগুর গ্রামের মৃত আজহার সরদারের ছেলে মিরাজ সরদার(৩৬) ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর থানার ছলিমগঞ্জের মৃত ইদন মিয়ার ছেলে মোমেন মিয়া(২৮)। 

জানা যায়, গত ২১ সেপ্টেম্বর বুধবার গভীর রাতে সিংগাইর উপজেলার সদর ইউনিয়নে গোবিন্দল গ্রামে ডাকাতির ঘটনায় ২০ জনের মত ডাকাত দল রাত দুই টার দিকে দেশীয় অস্ত্র দেখিয়ে সবাইকে জিম্মি করে এক এক করে সৌদি প্রবাসী আবু সাইদ, আব্দুল কাদের, মহিবুর রহমান, আবু সায়েদ ও আবুজরের বাড়ির সদস্যদের মারধর করে হামলা চালিয়ে লুটপাট করতে থাকে। আলমারি ও সুটকেস ভেঙ্গে প্রায় এক লাখ টাকা, ৭ ভরি স্বর্ণ, ২৫ ভরি রুপা ও ৪ টি মোবাইল নিয়ে যায় এবং জিনিসপত্র ভাঙচুর ও তছনছ করে। এ সময় ডাকাতদের হাতে ৩ জন আহত হয়। পরদিন থানায় মামলা হলে মানিকগঞ্জ পুলিশ সুপার গোলাম আজাদ খানের নির্দেশে পুলিশ ডাকাত ধরতে মাঠে নামে এবং এক সপ্তাহের মধ্যেই লুণ্ঠিত কাজে ব্যবহৃত ধারালো অস্ত্রসহ এসব ডাকাত ধরতে সক্ষম হন। 

সিংগাইর থানা ওসি সফিকুল ইসলাম মোল্যা বলেন, এরা আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সদস্য। এদের বিরুদ্ধে একাধিক ডাকাতি মামলা রয়েছে। অন্য পলাতক ডাকাতদেরও গ্রেফতারের জোর প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

ইত্তেফাক/এমএএম