বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ঘানায় সোনার খনিতে চীনের অবৈধ আধিপত্য মামলার নতুন মোড়

আপডেট : ০১ অক্টোবর ২০২২, ১৮:৪৯

আফ্রিকার দেশ ঘানার সোনার খনিতে চীনের আধিপত্য বিস্তারের মামলায় এক চীনা নারী ব্যবসায়ী সহ আরো তিন অভিযুক্ত ব্যক্তিদের কারাগারে রাখার নির্দেশ দিয়েছে দেশটির আদালত। এই চীনা নারী অবৈধ সোনার খনির রানি বলে খ্যাত। এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য জানিয়েছে চীনের সংবাদ মাধ্যম সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট।

প্রতিবেদনে বলা হয়, মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) ঘানার সর্বোচ্চ আদালত লাইসেন্সবিহীন খনিজ সম্পদ খনন, বিক্রি এবং কেনার দায়ে অভিযুক্ত এন হুয়াং ও তিন চীনা নাগরিকের জামিন খারিজ করেছেন। 

তবে তাদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন অভিযুক্তরা। মামলাটিকে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রেখেছে ঘানা। চীনের এ অভিযানে শতাধিক অবৈধ খনি শ্রমিককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

অভিযুক্তদের কারণে তদন্তে বাঁধা তৈরি হতে পারে বলে জানিয়েছেন এ মামলায় জামিনের বিপক্ষে থাকা আইনজীবীরা। 

এদিকে অভিযুক্তদের  ১২ অক্টোবরে আদালতে হাজির করার আগ পর্যন্ত পুলিশি হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

১৬ সেপ্টেম্বরে আক্রার উচ্চ আদালতে দায়ের করা অভিযোগে বলা হয়েছে যে, অভিযুক্ত হুয়াং ২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারি থেকে ২০১৭ সালের মে'র মধ্যে দক্ষিণ ঘানার বেপোটেনটেনে অবৈধভাবে খনির কার্যক্রম পরিচালনা করেছিলেন। হুয়াং কিছু স্থানীয় কৃষকদের জমি দখল করে বেআইনিভাবে খননকাজ করায় সে বছরেই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। পাশাপাশি তার কাছ থেকে দুটি চীনা পাসপোর্ট জব্দ করা হয়।

এদিকে ঘানার প্রেসিডেন্ট নানা অ্যাকুফো অ্যাডো এক বিবৃতিতে জানান যে, হুয়াং কে ২০১৮ সালে নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছিলো কিনা তা নিয়ে তিনি নিশ্চিত নন।

ইত্তেফাক/এএইচপি