শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

পাথরঘাটায় তুবা হত্যা মামলায় মা-ছেলে কারাগারে

আপডেট : ০৪ নভেম্বর ২০২২, ০৩:২৯

বরগুনার পাথরঘাটায় তুইবা তুবা (১৮) হত্যা মামলার প্রধান আসামি সজিব (২০) ও তার মা মোসা. মাজেদা বেগমকে (৪০) কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে আদালত। 

বৃহস্পতিবার পাথরঘাটা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হলে বিচারক প্রণব কুমার হুই তাদের জেল হাজতে প্রেরণ করার নির্দেশ দেন। তুইবা তুবা পাথরঘাটা পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের খাদ্যগুদামের পশ্চিম পাশের আজাদ হোসেন সেন্টুর ছোট মেয়ে।

প্রতীকী ছবি (সংগৃহীত)

সজিব পাথরঘাটা উপজেলা কালমেঘা ইউনিয়নের লাকুরতলা এলাকার আলমগীর হোসেনের ছেলে ও আলমগীর হোসেনের স্ত্রী মোসা. মাজেদা বেগম ।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত বছরের ১৯ অক্টোবর মৃত তুবাকে ১ নম্বর আসামি সজিবের কথা বলে, ২ নম্বর আসামি মাজেদা বেগম তার বাড়িতে ডেকে নিয়ে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ এবং মারধর করেন। পরের দিন আবারও তুবার বাড়ির উঠানে এসে সবার সামনে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করেন। এই কথায় সবার অজান্তে ঘরের আড়ার সঙ্গে ওড়না গলায় প্যাঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন। পরে একই বছরের ২৫ অক্টোবর পাথরঘাটা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তুইবা তুবার মা নাজমা বেগম বাদী হয়ে মো. সজিব, মাজেদা বেগম ও আলমগীর হোসেনকে আসামি করে তাদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

প্রতীকী ছবি (সংগৃহীত)

মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবী মো. রফিকুল ইসলাম মল্লিক জানান, আসামিদের বিরুদ্ধে পুলিশ ব্যুরো অব-ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দিয়েছে যে আসামি পক্ষ তুবাকে প্ররোচনা দেওয়ায় সে আত্মহত্যা করেছে।

ইত্তেফাক/এমএএম