শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

বাংলাদেশিদের ভিসা চালুর দাবিতে প্রতিবাদ

দর্শনা-গেদে সড়কপথ  

আপডেট : ০৫ নভেম্বর ২০২২, ১৬:৪৫

দর্শনা-গেদে সড়কপথে বাংলাদেশি পাসপোর্ট যাত্রীদের ভিসা চালুর দাবিতে দর্শনা রেল বন্দরের সামসুল ইসলাম চত্বরে গণ জমায়েত ও প্রতিবাদ সভা করা হয়েছে। 

শনিবার (৫ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এ প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

দামুড়হুদা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা যাচাই-বাচাই কমিটির আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. রুস্তম আলির সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্যে চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব আজাদুল ইসলাম আজাদ বলেন, একই আন্তর্জাতিক সীমান্ত দর্শনা-গেদে হয়ে ভারতীয় পাসপোর্ট (যাত্রী) নাগরীকরা যাতায়াত করবে অন্যদিকে বাংলাদেশিরা যেতে পারবে না তা তো হয় না। এটা অন্যায়। তিনি দ্রুত দর্শনা-গেদে সড়কপথে বাংলাদেশিদের যাতায়াতের জন্য ভিসা দেওয়ার আহবান জানান। 

চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের নবাগত চেয়ারম্যান ও দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামী লীগ সভপতি মাহফুজুর রহমান মঞ্জু বলেন, দর্শনা-গেদে সড়কপথে একজন পাসপোর্ট যাত্রী মাত্র দু’ঘণ্টায় ৩৫ টাকা ট্রেন ভাড়া দিয়ে কলকাতায় পৌছাতে পারে। যে সুবিধা অন্য কোনো সীমান্তপথে নেই। তাছাড়া সরকার এখান থেকে লাখ লাখ টাকা রাজস্ব পাবে বলে তিনি জানান। 

দামুড়হুদা উপজেলা চেয়ারম্যান আলি মুনসুর বাবু বলেন, দর্শনা-গেদে সড়কপথে কোভিডের আগে প্রতিদিন দেশের ২৫/৩০টি জেলার প্রায় দুই আড়াই হাজার পাসপোর্ট যাত্রী যাতায়াত করতো। এখন সে সমস্যা নেই। তিনি এ পথে যাত্রী যাতায়াত সুবিধা আগের মতো করার আহবান জানান। 

এছাড়া চুয়াডাঙ্গা পুজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক বাবু এম এস কুণ্ডু, জাসদ নেতা আনোয়ারুল ইসলাম বাবু, দর্শনা নাগরিক কমিটির সদস্য সচিব গোলাম ফারুক আরিফ, জীবননগর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আবু মো আ. লতিফ অমল, প্রেস ক্লাবের সভাপতি মুন্সি মাহবুবুর রহমান বাবু, কবি আবু সুফিয়ন বক্তব্য দেন। 

এ সময় জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক, সাংস্কৃতিক কর্মী, পেশাজীবিসহ বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের নেতা কর্মীরা বক্তব্য দেন। 

মহামারি করোনার কারণে ২০২০ সালে ২৬ মার্চ দর্শনা-গেদে স্থলপথে সব ধরনের ভিসা বন্ধ হয়ে যায়। ২০২১ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর স্বাস্থ্যবিধি মেনে দর্শনা আন্তর্জাতিক রেলপথে ভারতের সঙ্গে মালামাল আমদানি শুরু হয়। সঙ্গে বয়স্করোগী ও বিজনেস ভিসা চালু করা হলে গত ৫ ডিসেম্বর তা বন্ধ হয়ে যায়। তারপর থেকে গত আড়াই বছর দর্শনা-গেদে স্থলপথ বাংলাদেশিরা ভারতে প্রবেশ করতে পারেনি।

 

ইত্তেফাক/পিও