সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ডেঙ্গু আক্রান্ত পরীক্ষাদের জন্য 'বিশেষ ব্যবস্থা'

আপডেট : ০৬ নভেম্বর ২০২২, ১০:৫৯

আজ রোববার (৬ নভেম্বর) থেকে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হচ্ছে। বেলা ১১টায় বাংলা প্রথম পত্রের পরীক্ষার মাধ্যমে শুরু হচ্ছে এবারের এইচএসসি পরীক্ষা।

ডেঙ্গুর উদ্বেগজনক পরিস্থিতির মধ্যে শুরু হতে যাওয়া পরীক্ষায় শিক্ষার্থীদের ঝুঁকি কমাতে বিশেষ ব্যবস্থা নিয়েছে শিক্ষা বোর্ডগুলো।

আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটির সভাপতি অধ্যাপক তপন কুমার সরকার জানিয়েছেন, শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে কেন্দ্র ও কেন্দ্রের আশপাশে মশার ওষুধ ছিটাতে বলা হয়েছে। কেন্দ্র সচিবদের ডেঙ্গু ও কোভিডের বিষয়ে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে।

এছাড়া পরিক্ষার্থীদে মধ্যে কেউ যদি ডেঙ্গু আক্রান্ত থাকে, তবে তাদের জন্য আলাদা করে পরীক্ষা নেওয়ার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এদিকে, আগামী ১৩ ডিসেম্বর এইচএসসির তত্ত্বীয় পরীক্ষা শেষ হবে। ব্যবহারিক পরীক্ষা শুরু হবে ১৫ ডিসেম্বর, যা শেষ হবে ২২ ডিসেম্বর। এবার মোট ১২ লাখ ৩ হাজার ৪০৭ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। এর মধ্যে ছাত্র ৬ লাখ ২২ হাজার ৭৯৬ জন এবং ছাত্রী ৫ লাখ ৮০ হাজার ৬১১ জন। এবার মোট ২ হাজার ৬৪৯টি কেন্দ্রে ৯ হাজার ১৮১টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশ নেবে।

করোনার কারণে সব বিষয়ে ও পূর্ণ নম্বরে পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হয়নি। ২০২৩ সাল থেকে সব বিষয়ে পূর্ণ নম্বরে পুনর্বিন্যাস করা সিলেবাসে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

শিক্ষা বোর্ডের নির্দেশনায় বলা হয়েছে, পরীক্ষা শুরুর কমপক্ষে ৩০ মিনিট আগে পরীক্ষার্থীদের কেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে। অনিবার্য কারণে কোনো পরীক্ষার্থীকে নির্ধারিত সময় পার হওয়ার পরে প্রবেশ করতে দিলে তাদের নাম, রোল নম্বর, প্রবেশের সময়, বিলম্ব হওয়ার কারণ ইত্যাদি একটি রেজিস্টারে লিপিবদ্ধ করে ওইদিনই সংশ্লিষ্ট শিক্ষা বোর্ডে পাঠাতে হবে।

এছাড়া পরীক্ষা কেন্দ্রে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ছাড়া অন্য কেউ মোবাইল ফোন বা ইলেকট্রনিক ডিভাইস নিয়ে প্রবেশ করতে পারবেন না। ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ছবি তোলা যায় না এমন মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবেন। পরীক্ষা সংশ্লিষ্ট ছাড়া অন্য কেউ কেন্দ্রে প্রবেশ করতে পারবে না।

ইত্তেফাক/এসকে