বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৬ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

যাবজ্জীবন সাজার বিরুদ্ধে আপিল ক্রাইস্টচার্চের সেই হামলাকারীর

আপডেট : ০৯ নভেম্বর ২০২২, ০৩:৩৪

২০১৯ সালের ১৫ মার্চ নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে বন্দুক হামলা চালিয়ে ৫১ জন মুসল্লিকে হত্যা করেন অস্ট্রেলিয়ান নাগরিক ব্রেন্টন ট্যারেন্ট। এ ঘটনায় দায়ের করা মামলায় ২০২০ সালের ২৭ আগস্ট তাকে প্যারোল ছাড়া যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করে নিউজিল্যান্ডের একটি আদালত। ঐ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেছেন ব্রেন্টন ট্যারেন্ট।

মঙ্গলবার ওয়েলিংটনের একটি আদালতে দেশটির ইতিহাসে প্রথমবারের মতো দেওয়া প্যারোলবিহীন যাবজ্জীবনের বিরুদ্ধে এ আপিল করেছেন ট্যারেন্ট। আদালতটির এক মুখপাত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেন। সেসময়ে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ শহরের আল নুর ও লিনউড মসজিদে হামলা চালায় ট্যারেন্ট। মসজিদ দুটিতে জুমার নামাজের সময় অস্ত্র দিয়ে নির্বিচারে গুলি করে হত্যাযজ্ঞ চালায় অস্ট্রেলিয়ার এ নাগরিক। হামলার ঘটনা ফেসবুক লাইভে প্রচারও করে সে। ১৭ মিনিট ধরে ঐ হামলার সরাসরি ভিডিও প্রচারিত হয়। মুসল্লিদের মৃত্যু নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত একের পর এক গুলি ছুড়তে থাকে শ্বেতাঙ্গ আধিপত্যবাদে বিশ্বাসী ট্যারেন্ট। এ হামলায় ৫১ জন নিহত ও ৪০ জন আহত হন। এমন নৃশংস হামলায় নিউজিল্যান্ডসহ হতবাক হয়ে যায় সারা বিশ্বের মানুষ। এ ঘটনায় ট্যারেন্টকে সরাসরি সন্ত্রাসী ও জঙ্গি হিসেবে আখ্যা দেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরর্ডান। তাৎক্ষণিক দেশের অস্ত্র আইন পরিবর্তনের ঘোষণা দেন তিনি। বর্ণবিদ্বেষী ডানপন্থি মতাদর্শের শেকড় উপড়ে ফেলতে বৈশ্বিক লড়াইয়ের আহ্বানও জানান জেসিন্ডা।

ইত্তেফাক/ইআ