শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

৯৯৯-এ ফোন করে গ্রেফতার হলো চোর!

আপডেট : ১০ নভেম্বর ২০২২, ১৬:৫৯

পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস, অ্যাম্বুলেন্সসহ নানা জরুরি সেবা নিতে 'জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ ফোন দিয়ে সহায়তা চান ভুক্তভোগী মহল; কিন্তু এবার চুরির পর জনগণের গণপিটুনি থেকে নিজেকে বাঁচাতে ৯৯৯ নম্বরে ফোন দিয়ে গ্রেফতার হয়েছে নয়ন সরকার (২৮) নামের এক চিহ্নিত চোর। বুধবার (৯ নভেম্বর) বিকালে জীবননগর উপজেলার দেহাটিতে এ ঘটনা ঘটে।   

জীবননগর উপজেলার আন্দুলবাড়িয়া ইউনিয়নের শাহপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ সাব-ইন্সপেক্টর জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, ঝিনাইদহ জেলার কোটচাঁদপুর পৌর শহরের আদর্শপাড়ার জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে নয়ন সরকার ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে জানায়, আমি খুব বিপদে পড়েছি। আমার বাইসাইকেলটি ৪-৫ জন মানুষ জোরপূর্বক ছিনিয়ে নিচ্ছে। আমাকে বাঁচান। খবর পেয়ে শাহপুর ফাঁড়ি পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থল সন্তোষপুর-আন্দুরবাড়িয়া সড়কের দেহাটিতে গিয়ে তাকে জনরোষ থেকে উদ্ধার করে। 

এ সময় প্রত্যক্ষদর্শীরা পুলিশকে জানায়, নয়ন সরকার দামুড়হুদা উপজেলার দর্শনার শ্যামপুর গ্রাম থেকে একটি বাইসাইকেল চুরি করে এ পথ দিয়ে কোটচাঁদপুরে পালিয়ে যাচ্ছিলো। বাইসাইকেলের মালিকসহ তার নিকট জনেরা সাইকেল খুঁজতে বেরিয়ে পড়ে। দেহাটি পিয়াস  ফিলিং স্টেশনের নিকট এসে তারা চুরিকৃত বাইসাইকেলসহ চোরকে আটক করে। এসময় সে জনতার গণপিটুনি থেকে বাঁচতে পুলিশকে ফোন দেয়। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে নয়ন একপর্যায়ে বাইসাইকেল চুরির কথা স্বীকার করে। 

পুলিশ জানায়, কোটচাঁদপুর থানায় নয়নের বিরুদ্ধে একাধিক চুরির মামলাসহ চারটি মামলায় তার গ্রেফতারী পরোয়ানা রয়েছে।

জীবননগর থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল খালেক জানান, বাইসাইকেল মালিক মামলা না করায় নয়ন সরকারকে আইন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে বৃহস্পতিবার কোটচাঁদপুর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

ইত্তেফাক/এআই