রোববার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

নায়াগ্রায় পর্যটকদের জন্য উন্মুক্ত শতাব্দীপ্রাচীন সুড়ঙ্গ

আপডেট : ১৩ নভেম্বর ২০২২, ০১:০৯

কানাডার নায়াগ্রা জলপ্রপাতের নিচে থাকা একটি শতাব্দীপ্রাচীন সুড়ঙ্গ আবারও খুলে দেওয়া হলো পর্যটকদের জন্য। সুড়ঙ্গটি ৮ মিটার লম্বা ও ৬ মিটার চওড়া। সুড়ঙ্গটিতে প্রবেশ করতে হবে কানাডার দিকে জলপ্রপাতের যে অংশটি, তার কাছ দিয়ে। সুড়ঙ্গটি প্রায় ২ হাজার ২০০ ফুট (০.৬৭ কিলোমিটার) দীর্ঘ।

একটি কাচের লিফটে করে পর্যটকদের এই সুড়ঙ্গের মুখ পর্যন্ত নিয়ে যাওয়া হবে। তার পরে অন্য একটি লিফটে করে সুড়ঙ্গের ১৮০ ফুট ভেতরে গেলে একটি বিদ্যুৎকেন্দ্রে পৌঁছাবে। সুড়ঙ্গটি আসলে ঐ বিদ্যুৎকেন্দ্রেরই অংশ। ১৯০৫ সালে জলপ্রপাতের কাছে জলশক্তি উত্পাদনের জন্য বিদ্যুৎকেন্দ্রটি বানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিল কানাডা সরকার। কয়েক হাজার কর্মী প্রায় চার বছর ধরে কাজ করে সেটির নির্মাণকাজ শেষ করেন।

কানাডার নায়াগ্রা জলপ্রপাতের নিচে থাকা সেই শতাব্দীপ্রাচীন সুড়ঙ্গ

দ্য বেঙ্গলি টাইমস জানায়, সুড়ঙ্গের শেষে পৌঁছালে আধ কিলোমিটারেরও বেশি দীর্ঘ পথ হেঁটে পার হতে হবে পর্যটকদের। তবে মাঝে মাঝে বসার জন্য বেঞ্চ থাকবে। সুড়ঙ্গের একদম শেষ প্রান্তে পৌঁছালে নায়াগ্রা জলপ্রপাত খুবই কাছ থেকে দেখতে পাবেন পর্যটকেরা।

কানাডা সরকারের নায়াগ্রাবিষয়ক সংস্থা নায়াগ্রা পার্কস কমিশনের ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে, সুড়ঙ্গের শেষে ২০ মিটার দীর্ঘ একটি প্ল্যাটফরম বানানো হয়েছে, যাতে পর্যটকেরা সেখানে দাঁড়িয়ে জলপ্রপাতের দৃশ্য উপভোগ করতে পারেন। একটি লাইট অ্যান্ড সাউন্ড শোর আয়োজনও করা হয়েছে; যেখানে ঐ বিদ্যুেকন্দ্রের ইতিহাসের ব্যাপারে জানতে পারবেন পর্যটকেরা। রাতের বেলায়ও সুড়ঙ্গ থেকে নায়াগ্রার শোভা দেখার সুযোগ পাওয়া যাবে।

ইত্তেফাক/ইআ