সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

মনিপুর হাইস্কুলের অধ্যক্ষ পদে থাকতে পারবেন না ফরহাদ

আপডেট : ১৪ নভেম্বর ২০২২, ০২:১৪

মনিপুর হাইস্কুলের অধ্যক্ষ পদে ফরহাদ হোসেনের থাকার আর আইনগত কোন সুযোগ নেই। ওই পদে তার দায়িত্ব চালিয়ে যেতে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ স্থগিত করে দিয়েছে আপিল বিভাগের চেম্বার আদালত। এ সংক্রান্ত এক আবেদনের শুনানি নিয়ে আপিল বিভাগের বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম গতকাল রবিবার এই আদেশ দেন। 

এই আদেশের ফলে মনিপুর হাইস্কুলের অধ্যক্ষ পদে ফরহাদ হোসেনের আর দায়িত্ব পালনের আইনগত কোনো সুযোগ নেই বলে জানিয়েছেন আইনজীবী ব্যারিস্টার সিদ্দিকুর রহমান খান। তিনি বলেন, হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত হয়ে গেছে। ফলে উনি আর অধ্যক্ষের চেয়ারে বসতে পারবেন না।

বিধি না মেনে অবৈধভাবে অধ্যক্ষ পদে নিয়োগ দেয়া হয় ফরহাদ হোসেনকে। সম্প্রতি ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের এক তদন্তে বিষয়টি প্রমাণিত হয়। তদন্ত রিপোর্টে বলা হয়, ২০২৩ সালের জুন মাস পর্যন্ত ফরহাদ হোসেনর চুক্তি ভিত্তিক নিয়োগ দেওয়া হয়। যা বিধি অনুযায়ী হয়নি।

এই তদন্তের আলোকে বিধি অনুযায়ী ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ পদে নিয়োগের জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের (মাউশি) মহাপরিচালকের কাছে চিঠি দেয় ঢাকা শিক্ষাবোর্ড। মাউশি যখন এই নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করে তখনই হাইকোর্টে গিয়ে রিট মামলা দায়ের করে। আদালত এই চিঠির কার্যকরিতা ৬ মাসের জন্য স্থগিত করে দেয়। পরে গতকাল হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করে দিয়েছে আপিল বিভাগের চেম্বার আদালত।

এ বিষয়ে গতকাল ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তপন কুমার সরকার বলেন, চিঠির কার্যকরিতা ফেরত পেয়েছি। আইনজীবী আমাকে বিষয়টি অবহিত করেছে। এখন মাউশি ওই কলেজে নতুন কাউকে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নিয়োগ দিতে পারবে।

আর মাউশির মহাপরিচালক অধ্যাপক নেহাল আহমেদ বলেন, অফিসিয়াল ভাবে ওই আদেশের চিঠি দুএকদিনের মধ্যে হয়তো পেয়ে যাবো। আর এ বিষয়ে ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যানের সাথে কথা বলবো। তিনি জানান, সিনিয়র একজনকে প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক/অধ্যক্ষের দায়িত্ব দেয়া হবে।

 

ইত্তেফাক/ইআ