রোববার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ফাইনালে খেলতে পারে ফ্রান্স, ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা: কাজী সালাহউদ্দিন

আপডেট : ২০ নভেম্বর ২০২২, ০২:৩১

বাংলাদেশের প্রথম কোনো পেশাদার ফুটবলার কাজী সালাহউদ্দিন। এদেশের ফুটবলের কিংবদন্তি। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি এবং দক্ষিণ এশিয়া ফুটবল ফেডারেশনেরও সভাপতি তিনি। আন্তর্জাতিক ফুটবলের সব তথ্য তার নখদর্পণে। বিশ্বকাপ ফুটবল নিয়ে তার মাতামাতি নেই খুব একটা। তবে দেশের সংবাদমাধ্যম কিংবা তার পরিচিতজনদের নানা প্রশ্ন থাকে ফুটবল নিয়ে। বিশ্বকাপ নিয়ে সালাহউদ্দিন বললেন, ‘ফ্রান্স এবং ব্রাজিল ফাইনাল খেলতে পারে।’

‘ফ্রান্স খুব পাওয়ারফুল দল, ব্রাজিলও পাওয়ারফুল দল। এটাও হতে পারে আর্জেন্টিনা ফাইনালে উঠতে পারে। যদি কোনো দুর্ঘটনা ঘটে—বললেন সালাহউদ্দিন। তিনি বলেন, ‘আমি খেলা দেখেছি ইংল্যান্ড চার গোল খেয়েছিল হাঙ্গেরির কাছে। এবার ইউরো চ্যাম্পিয়ন হয়েও বিশ্বকাপে খেলতে পারল না। বিশ্বকাপে যেকোনো ঘটনাই ঘটতে পারে।’ তাহলে ফ্রান্স, ব্রাজিল কিংবা আর্জেন্টিনা ফাইনাল খেলতে পারে, এটা আমার মনে হয়।’

এশিয়ায় গরমের মধ্যে খেলা। এটা কি সমস্যা পরবে কি না। সালাহউদ্দিন বললেন, ‘এটা কোনো ব্যাপার না। মাঠ ঠান্ডা রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে।’ অনুশীলন? সালাহউদ্দিন বললেন, ‘রাতে অনুশীলন করবে।’

সালাহউদ্দিনের চোখে সবচেয়ে বড় সমস্যা হচ্ছে বিশ্বকাপের আগে ইউরোপের লিগ চলছিল। সালাহউদ্দিন বললেন, ‘এখানেই সমস্যা। ইউরোপের লিগ চলছিল। ইনজুরি খুব বেশি। ক্লান্তি ছিল। এই ধকল কাটানো কঠিন হয়ে যাবে।’

সালাহউদ্দিনের চোখে শঙ্কা। ফুটবলার ক্লান্ত, ইনজুরি খুব বেশি। সালাহউদ্দিন বললেন, ‘এই ধকলে ভালো কোনো দেশ ছিটকে যেতে পারে। কারণ ভালো দেশ মানেই তো ভালো ফুটবলার। আর ভালো প্লেয়ার মানেই তারা চ্যাম্পিয়নস লিগ-টিগ খেলছে। ইউরোপের লিগ খেলেই বিশ্বকাপে খেলতে এসেছে।’

মেসি, নেইমার, রোনালদো খেলছেন। এটাই কি তাদের শেষ বিশ্বকাপ? সালাহউদ্দিন বললেন, ‘আর কতো।’ এরা তাহলে বিদায় নেবে? সালাহউদ্দিন বললেন, ‘উপায় নেই। বয়স হয়েছে না।’ নতুন তারকা কে? সালাহউদ্দিন বললেন, ‘এমবাপে। ফ্রান্সের ফুটবলার। বিশ্বকাপে আরো বের হবে। বিশ্বকাপ তো তারকা প্রডিউস করে। এখনকার দিনে তারকা পাবেন না। কারণ তারকা ফুটবল নেই, এখন এটা টিম গেম। আপনি ম্যানচেস্টার সিটির কয়টা প্লেয়ারকে মুখস্ত বলতে পারবেন। আগামীতে টিম গেমই খেলা হবে। এখনকার ফুটবলে কেউ একা তারকা হওয়াটা কঠিন হয়ে যাবে।’    

ইত্তেফাক/ইআ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন