বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

সিরিয়ার রকেট হামলায় তুরস্কে নিহত ৩

আপডেট : ২৩ নভেম্বর ২০২২, ১০:৫০

সিরিয়ার কুর্দি নিয়ন্ত্রিত এলাকায় তুরস্ক বিমান হামলা চালানোর একদিন পর রকেট হামলার ঘটনা ঘটল। এই হামলার জবাব দেয়া হবে বলে জানিয়েছে তুরস্ক। ডয়চে ভেলের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

তুরস্কের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুলেমান সোয়লু এক লাইভ টিভি সম্প্রচারে বলেন, 'আমাদের তিনজন নাগরিকের প্রাণহানি ঘটেছে, যার মধ্যে রয়েছে এক শিশু ও এক শিক্ষক।' এই হামলার কড়া জবাব দেয়া হবে বলে জানান তিনি।

রকেট একটি স্কুল, দুইটি বাড়ি ও একটি ট্রাকে আঘাত হানলে এটি প্রাণহানি ঘটে বলে বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে। তুরস্কের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মতে, রকেটগুলো ছুঁড়েছে কুর্দি জঙ্গিরা, যারা তুরস্ক সংলগ্ন সিরিয়ার এক বিশাল এলাকা নিয়ন্ত্রণ করছে।

তুরস্কের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুলেমান সোয়লু

তুরস্ক সম্প্রতি সিরিয়া ও ইরাকের যেসব অঞ্চল কুর্দিরা নিয়ন্ত্রিত করছে সেসব এলাকাতে পুনরায় বিমান হামলা শুরু করে। ১৩ নভেম্বর রাজধানী আঙ্কারাতে হামলার জবার দিতেই বিমান হামলা শুরু করেছে বলে দাবি করা হয়।

এই হামলার জন্য কুর্দিশ ওয়ার্কার্স পার্টি (পিকেকে) ও সিরিয়ায় তাদের সহযোগী পিপলস প্রোটেকশন ইউনিটের (ওয়াইপিজি) জঙ্গিদের দোষারোপ করে তুরস্ক। তবে কুর্দি গ্রুপগুলো এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

কুর্দিশ ওয়ার্কার্স পার্টি (পিকেকে)

এই রকেট হামলার পাল্টা জবাব দিতে তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান উত্তর সিরিয়ায় স্থল অভিযানের কথা বিবেচনা করছেন বলে মনে করা হচ্ছে। এ ধরনের একটি অভিযান চালানো হয়েছিল ২০১৮ সালে আফরিনের উত্তর-পশ্চিম ক্যান্টনে। 

কাতারে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দেখে ফেরার পর তিনি সাংবাদিকদের বলেন,'শুধুমাত্র আকাশ পথে অভিযানের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকার প্রশ্নই আসে না। যথাযথ কর্তৃপক্ষ, প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ও চিফ অফ স্টাফ বসে সিদ্ধান্ত নেবেন আমাদের স্থল বাহিনী কী ধরনের শক্তি প্রয়োগ করবে।'

ইত্তেফাক/ডিএস