শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প উন্নয়নে বাজারজাতে গুরুত্ব এফবিসিসিআইয়ের

আপডেট : ২৩ নভেম্বর ২০২২, ২১:৫০

দেশের ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প উন্নয়নে গবেষণা, পণ্যের মান উন্নয়ন ও বাজারজাতকরণে গুরুত্ব দিতে চায় ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই। প্রতিষ্ঠানটি মনে করে ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প এবং বিভিন্ন হস্তশিল্পের পণ্যকে দেশীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে মানসম্মত করতে হলে গবেষণা এবং আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারের বিকল্প নেই।

মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর) সংগঠনের হস্তশিল্প, তাঁত ও কুটির শিল্প ও ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর পণ্যবিষয়ক স্টান্ডিং কমিটির সভায় এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়।
 
কমিটির সভাপতি মো. রাশিদুল করিম মুন্নার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন এফবিসিসিআইয়ের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোস্তফা আজা চৌধুরী বাবু। এত আরও বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সহ-সভাপতি আমিন হিলালী, পরিচালক মো. আলী হোসেন শিশির, আক্কাস মাহমুদ, সাবেক পরিচালক শাহেদুল ইসলাম হেলাল এবং নাসিব সভাপতি নুরুল গনি স্বপন।
 
মো. রাশিদুল করিম মুন্না বলেন, সভায় আলোচ্য খাতের চ্যালেঞ্জ ও সম্ভাবনাগুলো খুজে বের করে আগামী সাত বছরের জন্য কর্মপরিকল্পনা তৈরির সিদ্ধান্ত হয়েছে। বিশেষ করে জেলা পর্যায়ে যেসব উদ্যোক্তা আছেন তাদের উৎপাদিত পণ্য যাতে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বাজারজাত করা যায় সে লক্ষ্যে কাজ করার বিষয়ে মতৈক্য হয়েছে। এক্ষেত্রে গবেষণা দারুণ কাজ দিতে পারে। 

তিনি বলেন, আমাদের প্রতিযোগী দেশগুলো পণ্যের মান উন্নয়নে গবেষণা ও আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারে যথেষ্ট গুরুত্ব দিয়ে থাকে। আমরাও যদি সে দিকে যেতে পারি তাহলে পণ্যগুলো আন্তর্জাতিক মানের হবে এবং রপ্তানিও বাড়বে। এক্ষেত্রে সরকার এবং অন্যান্য যেসব সংস্থা কাজ করে তাদের মধ্যে সমন্বয় করে নীতি কৌশল প্রণয়ন করতে হবে। যেসব পণ্য আমাদের দেশীয় উদ্যোক্তারা তৈরি করে সেগুলোর আমদানি যাতে নিরুৎসাহিত করা হয় সে জন্য সরকারের কাছে জোর দাবি জানানো হয়। 

রাশিদুল করিম বলেন, পণ্যের মান এবং অন্যান্য বিষয়ে উদ্যোক্তাদের ধারণা দেওয়ার জন্য আগামী দিনগুলোতে জাতীয় ও স্থানীয় পর্যায়ে বিভিন্ন সভা-সেমিনার করা হবে। এ সবের মাধ্যমে যেসব সুপারিশ আসবে তা এফবিসিসিআইয়ের মাধ্যমে সরকারকে জানানো হবে।     

 

ইত্তেফাক/পিও