শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

প্রথম ম্যাচে ঘানা চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি রোনালদোরা

আপডেট : ২৪ নভেম্বর ২০২২, ০৫:৩৫

বর্তমান ফুটবলের সেরা খেলোয়াড়দের একজন পর্তুগালের ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। ২০০৬ সালের ফিফা বিশ্বকাপ থেকে শুরু করে এবারের ২০২২ কাতার বিশ্বকাপ পর্যন্ত মোট পাঁচটি বিশ্বকাপ খেলতে চলেছেন। এবারই তাকে শেষবারের মতো বিশ্বকাপ মঞ্চে দেখা যাবে। কেননা বর্তমানে তার বয়স ৩৭ বছর। তাই ধারণা করা যাচ্ছে দলটির প্রত্যেকটি খেলোয়াড়ের মাথায়ই এই ব্যাপারটি নিশ্চয় থাকবে যে, তাদের দেশের সর্বকালের শ্রেষ্ঠ ফুটবলারের শেষ বিশ্বকাপ এটি এবং যেভাবেই হোক তাকে শিরোপাটি জেতানোর একটি শেষ চেষ্টা চালানো।

আজ রাত ১০টায় স্টেডিয়াম ৯৭৪-এ ঘানার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে পর্তুগাল শুরু করবে নিজেদের বিশ্বকাপ মিশন। দলে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ছাড়াও রয়েছেন বিভিন্ন ক্লাবের তারকা খেলোয়াড়রা। তাই বলাই যায় পর্তুগাল তুলনামূলকভাবে সহজ প্রতিপক্ষ পেয়েছে যা তাদের মনোবল চাঙ্গা করতে সহায়তা করবে বিশ্বকাপে। এর আগে ২০১৪ বিশ্বকাপেও ঘানার মুখোমুখি হয়েছিল পর্তুগাল। সেই ম্যাচে পর্তুগাল ২-১ গোলে জয় পেয়েছিল। তবে চলতি ২০২২-২৩ মৌসুম শুরুর পর থেকেই বেশ বাজে ফর্মে রয়েছেন রোনালদো এবং একের পর এক গোলের সুযোগও মিস করেই যাচ্ছেন। এছাড়া বিশ্বকাপের আগে নিজের বর্তমান ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে নিয়ে বিস্ফোরক বক্তব্য দিয়ে আরো আলোচনা-সমালোচনায় রয়েছেন তিনি। অন্য দিকে ম্যাচে নামার আগের দিনই ক্লাবটির সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই সম্পর্ক ছিন্ন করেন এই তারকা খেলোয়াড়।

এদিকে পর্তুগাল তাদের খেলা সর্বশেষ ছয়টি ম্যাচের মধ্যে তিনটিতেই জয়লাভ করেছে, তাও আবার বড় বড় ব্যবধানে। সেই তিন ম্যাচে তাদের সম্মিলিত স্কোরলাইন হল ১০-০, যা তাদের যে কোনো ম্যাচকে ডমিনেট করার ক্ষমতাটিকেই তুলে ধরে। এদিকে ঘানা এবারের বিশ্বকাপে অংশগ্রহণকারী আফ্রিকা থেকে আগত সবচেয়ে দুর্বল দল, এবং তাদের খেলা সর্বশেষ ছয়টি ম্যাচে তাদের শোচনীয় রেকর্ডই সেটির চোখ ধাঁধানো প্রমাণ।

বিশ্বকাপে আশার আগে তাদের খেলা সর্বশেষ সেই ছয়টি ম্যাচের মধ্যে মোটামুটি দুর্বল সব প্রতিপক্ষদের বিপক্ষে মাত্র একটি জয়, তিনটি ড্র এবং দুটি পরাজয় মোটেও তাদেরকে আত্মবিশ্বাসী করে তুলবে না। তবে, তাদের দলে বেশ কিছু নতুন যুবা খেলোয়াড়কে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। তারা যদি নিজেদের প্রতিভার সঙ্গে সুবিচার করতে পারে, তবেই শুধু ঘানা তাদের ২০১০ বিশ্বকাপের ফর্মের পুনরাবৃত্তি ঘটাতে পারবে।

ইত্তেফাক/ইআ