রোববার, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২২ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

বালু ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ

আপডেট : ২৬ নভেম্বর ২০২২, ১৮:১৫

ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলার চর হরিরামপুর ইউনিয়নে কাউসার খান (৪১) নামের এক বালু ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা অভিযোগ পাওয়া গেছে। পুলিশের ধারণা, শুক্রবার দিবাগত রাতের কোনো এক সময় তাকে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। 

শনিবার (২৬ নভেম্বর) বেলা ১০টার দিকে উপজেলার চর হরিরামপুর ইউনিয়নের জাকেরেরশুরা ভাঙ্গার মাথা এলাকায় নিহতের লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেন। খবর পেয়ে চরভদ্রাসন থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। চর হরিরামপুরের ইউপি সদস্য কুদ্দুস মণ্ডল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিহত ওই বালু ব্যবসায়ী সদর ইউনিয়নের এমকে ডাঙ্গী গ্রামের মৃত জালাল খানের ছেলে। পরিবারের চার ভাই ও তিন বোনের মধ্যে দ্বিতীয় কাউসার বালু ব্যবসার সঙ্গে জড়িত ছিলেন। নিহত কাউসার খানের দুই মেয়ে রয়েছে।

চর হরিরামপুর ইউপি সদস্য কুদ্দুস মণ্ডল জানান, সকাল ১০টার দিকে ওই গ্রামের কয়েকজন নারী পদ্মা নদীতে পানি আনতে গেলে কাউসারের লাশ বালুর স্তুপের উপর পড়ে থাকতে দেখেন। ওই নারীরা ঘটনাটি তাকে জানালে তিনি চরভদ্রাসন থানায় খবর দেন। পরে বেলা ১১টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশ উদ্ধার করেন।

নিহতের ভাই লিয়াকত খান (২৭) জানান, গত শুক্রবার দুপুরে খাবার খেয়ে ব্যবসার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হয়ে যান কাউসার। রাত নয়টার দিকে তিনি বাড়িতে না ফেরায় কাউসারের মুঠোফোনে ফোন দেওয়া হলে সেটি বন্ধ পাওয়া যায়। আত্মীয়-স্বজন ও পরিচিত ব্যক্তিদের সঙ্গে যোগাযোগ করেও কাউসারের কোনো খবর পাওয়া যায়নি। রাতভর স্বজনরা অপেক্ষায় থাকলেও তিনি ফিরে আসেননি। সকালে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ সুপার মো. শাহজাহান বলেন, উদ্ধার করা লাশের পরিচয় শনাক্ত করেছে পুলিশ। আপাতদৃষ্টিতে দেখে মনে হচ্ছে এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। অপরাধীদের শনাক্ত করে দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে। এ ব্যাপারে থানায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন পুলিশ সুপার মো. শাহজাহান,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) সুমন রঞ্জন সরকার ও চরভদ্রাসন থানার ওসি মিন্টু মণ্ডল।

ইত্তেফাক/বুখারী/পিও