বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৫ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

'মজা' করতে না পারায় চাকরিচ্যুত

আপডেট : ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১৪:০২

ফ্রান্সে এক ব্যক্তি হঠাৎ করে চাকরি হারান। বেশ ব্যতিক্রমী একটি কারনে তার চাকরিটি চলে যায়। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি একদমই মজা করতে পারেন না। যখন তার সহকর্মীরা অট্টহাসিতে ফেটে পড়ে, তখন সে যোগ দেয় না, চুপ থাকে। 

চাকরি হারিয়ে ওই ব্যক্তিও মামলা ঠুকে দেন অফিস কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। মাঝে কেটে যায় অনেক বছর। অবশেষে আদালত তার পক্ষে রায় দেন। মামলায় তিনি জিতেছেন।

ওই ব্যক্তির নাম প্রকাশ করা হয়নি। মিডিয়া রিপোর্টে 'টি' হিসেবে তার পরিচয় প্রকাশ করা হয়েছে। তিনি প্যারিস ভিত্তিক পরামর্শক প্রতিষ্ঠান কিউবিক পার্টনার্সে পরামর্শক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। 

হঠাৎ কোম্পানি তাকে চাকরিচ্যুত করে। কারণ হিসেবে বলা হচ্ছে, তিনি যথেষ্ট 'মজার' নন। সহকর্মীরা সপ্তাহান্তে যখন আনন্দে মেতে ওঠেন, পানীয় পান করেন তখন সেসব আয়োজনে যোগ দেন না তিনি। এটি একটি দল হিসাবে কাজ করা কঠিন করে তোলে। পরে ওই ব্যক্তি অফিসের এমন উদ্যোগের বিরুদ্ধে আদালতে যান।

চলতি মাসের শুরুতে আদালত জানায়, এই অদ্ভুত কারণে কাউকে বরখাস্ত করার কোনো যৌক্তিকতা নেই। প্রত্যেকের স্বতন্ত্র্য বৈশিষ্ট্য রয়েছে। যদি ব্যক্তিটি সহকর্মীদের সঙ্গে কোনো মজাদার অনুষ্ঠানে অংশ নিতে না চান তবে তিনি তা করতে পারবেন। এটা তার ব্যক্তিগত বিষয়। এজন্য কাউকে বরখাস্ত করা যাবে না।

সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে জানা যায়, ব্যক্তিটি ২০১১ সালে কিউবিক পার্টনার্সে যোগদান করেন। এর পর তিনি দ্রুত উন্নতি করেন। ২০১৪ সালের মধ্যে তিনি পরিচালক এবং পরে পরামর্শক পদে উন্নীত হন। মূলত তখন থেকেই তার সঙ্গে তার সহকর্মীদের দূরত্ব বেড়ে যায়। ফলস্বরূপ, ব্যক্তিটি 'মজার' ব্যক্তি না হওয়ার জন্য পরের বছরই তার চাকরি হারান। 

ইত্তেফাক/ডিএস

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন