শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২৩, ১৩ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

শত বছরের বঞ্চিত চরবাসীর স্বপ্নপূরণ

আপডেট : ২৭ নভেম্বর ২০২২, ২১:৪৭

জামালপুর জেলার মাদারগঞ্জের সঙ্গে বগুড়া জেলার সারিয়াকান্দি উপজেলার দুটি ইউনিয়নের ১৯ গ্রাম ও প্রায় ৪ হাজার একর জমি অর্ন্তভুক্তি হওয়ার খবরে শত বছরের চরবাসীর মধ্যে আনন্দের বন্যা বইছে। শত বছরের জমি নিয়ে একটি বিশাল বিরোধ মিট হওয়ায় এই খবরে চরবাসী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও  জননেতা মির্জা আজমকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। 

রোববার (২৭ নভেম্বর) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস-সংক্রান্ত জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির (নিকার) বৈঠকে এ সংক্রান্ত প্রস্তাব পাশ হয়। 

জানা যায়, ১৯০৯ সালে কেডিষ্টাল সার্ভের সময় যমুনা নদীর পূর্বপাড়ে ঐ মৌজাগুলো তৎকালীন ময়মনসিংহ জেলার মাদারগঞ্জ থানাধীন ছিলো। পরে নদী ভাঙনের কারণ দেখিয়ে জমিগুলো আর, এস জরিপের সময় তা বগুড়া জেলার সারিয়াকান্দি থানায় অন্তর্ভুক্ত হয়। এই নিয়ে জমির অধিকাংশ মালিক তার জমাজমি হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে পড়ে। দখলকার লাঠিয়ালদের দখলে চলে যায় এ সব জমা জমি নিয়ে বহু সংঘর্ষ নিহত ও আহতের ঘটনা ঘটেছে। এই নিয়ে ৫০ বছর মামলা চললে বিগত ২০১৪ সালে তা রায় হয় মাদারগঞ্জের পক্ষে। কিন্তু ঐ সব এলাকা জামালপুরের অর্ন্তগত প্রশাসনিক অঞ্চল না থাকায় জমিগুলো মূল মালিকরা পাচ্ছিল না। 

মাদারগঞ্জ-মেলান্দের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম জানান, শত বছরের এই বিরোধ নিষ্পত্তি হওয়ায় আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানাই। তিনি জানান, এটা ছিলো আমার নির্বাচনী অঙ্গীকার। তাই আজ আমার এলাকার মানুষ আনন্দিত। 

ইত্তেফাক/পিও