রোববার, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

শিশু আয়াত হত্যা: আবীরের বাবা-মা ৩ দিনের রিমান্ডে

আপডেট : ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৮:৪৪

চট্টগ্রামে ৫ বছরের শিশু আয়াতকে অপহরণের পর হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার আবীর আলীর বাবা ও মাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৩ দিনের রিমান্ডে নেওয়ার অনুমতি পেয়েছে পুলিশ। মহানগর ম্যাজিস্ট্রেট অলিউল্লাহ মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এছাড়া আবিরের অপ্রাপ্তবয়স্ক ছোট বোনকে ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে রেখে সমাজসেবা কর্মকর্তার উপস্থিতিতে জিজ্ঞাসাবাদের আদেশ দেওয়া হয়েছে। চট্টগ্রামের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৬ এর বিচারক সিরাজউল্লাহ কুতুবী এ আদেশ দেন। 

এর আগে মঙ্গলবার সকালে আবিরের বাবা আজহারুল ইসলাম, মা আলো বেগম এবং তাদের ১৫ বছর বয়সী মেয়েকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারের পরপরই তাদেরকে আদালতে হাজির করে ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়। 

পিবিআই সূত্র জানায়, আয়াত হত্যার ঘটনায় মূল অভিযুক্ত আবীর আলীকে দ্বিতীয় দফায় রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তার দেওয়া তথ্য যাচাই করে আবিরের বাবা-মা, বোনের কাছে আয়াত হত্যার বিষয়ে আরও তথ্য থাকতে পারে বলে পুলিশের ধারণা হয়। সেই তথ্যগুলো যাচাই করে দেখার জন্য আবীরের বাবা, মা ও ছোট বোনকে গ্রেফতার করে রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে। 

শিশু আয়াত।

গত ১৫ নভেম্বর চট্টগ্রাম নগরীর ইপিজেড এলাকার নয়ারহাট বিদ্যুৎ অফিসের সামনে থেকে নিখোঁজ হয় ৫ বছরের শিশু আয়াত। এ ঘটনায় শিশুটির বাবা সোহেল ইপিজেড থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করেন। ঘটনা তদন্তে নেমে আয়াতদের বাসার সাবেক ভাড়াটিয়া আবিরের সম্পৃক্ততা পায়। 

পিবিআই জানায়, আয়াতকে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায় করাই ছিল আবিরের লক্ষ্য। কিন্তু ঘটনার দিন তার মোবাইলের সিম কাজ না করায় আয়াতের পরিবারকে সে টাকার জন্য ফোন দিতে পারছিল না। এক পর্যায়ে শিশুটি কান্নাকাটি শুরু করলে আবীর তাকে শ্বাসরোধ করে মেরে ফেলে। সেই লাশ পরদিন সকালে ৬ টুকরা করে সাগরে ভাসিয়ে দেয় আবির। আবীরের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী শিশুটির খণ্ডিত লাশের সন্ধানে নগরীর আউটার রিং রোডের বে টার্মিনাল এলাকা এবং আকমল আলী খালের মোহনায় তল্লাশি করে পিবিআই। তবে আজ পর্যন্ত শিশুটির দেহাবশেষ পাওয়া যায়নি।

ইত্তেফাক/এএএম