রোববার, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

চট্টগ্রামে শিশু ধর্ষণ মামলার ২ তদন্ত কর্মকর্তাকে আদালতে তলব 

আপডেট : ২৯ নভেম্বর ২০২২, ২২:২৪

চট্টগ্রামে ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণের ঘটনায় মূল আসামিকে বাদ দিয়ে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ব্যক্তির ওপর দায় চাপিয়ে মামলার চার্জ গঠন ও সাক্ষী গ্রহণ করায় দুই তদন্ত কর্মকর্তাকে আদালতে তলব করা হয়েছে। চট্টগ্রামের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৪ এর বিচারক মো. জামিউল হায়দার মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) এ আদেশ দেন।  

অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তারা হলেন, সিএমপি’র আকবর শাহ থানার এসআই বিকাশ চন্দ্র শীল ও নগর গোয়েন্দা পুলিশের (বন্দর) পরিদর্শক প্রিটন সরকার। তাদের ৮ জানুয়ারি সশরীরে আদালতে উপস্থিত হতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

অভিযোগে জানা যায়, চট্টগ্রাম নগরীর আকবর শাহ থানার বেলতলী ঘোনা এলাকায় এক রিকশা চালকের শিশু কন্যাকে শ্যাম্পু ও বেলুন কিনে দেওয়ার লোভ দেখিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে নির্মল চন্দ্র আইচ নামে এক ব্যক্তিকে আসামি করে মামলা করেন শিশুটির বাবা। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই বিকাশ চন্দ্র শীল মূল অভিযুক্তকে চার্জশিট থেকে বাদ দিয়ে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত সন্ত্রাসী বেলাল হোসেনকে অভিযুক্ত উল্লেখ করে ২০২০ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন। প্রতিবেদনের বিরুদ্ধে বাদীপক্ষের নারাজি আবেদনের শুনানি শেষে মামলা অধিকতর তদন্তের জন্য ডিবি পুলিশকে নির্দেশ দেন আদালত।

২০২১ সালের ২৩ নভেম্বর নগর গোয়েন্দা পুলিশ (বন্দর) এর পরিদর্শক প্রিটন সরকার পূর্ববর্তী প্রতিবেদন অনুসরণ করে একইভাবে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন। ওই প্রতিবেদনের বিরুদ্ধে বাদী পক্ষে পুনরায় নারাজি দাখিল করলে আদালত এ সংক্রান্ত শুনানি শেষে উভয় প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করে আসামির বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সরাসরি আমলে নিয়ে চার্জগঠনপূর্বক ৫ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ করেন।

বাদী পক্ষের আইনজীবী জিয়া হাবীব আহসান ইত্তেফাককে বলেন, ‘আজ মঙ্গলবার দুই তদন্ত কর্মকর্তার সাক্ষ্য প্রদানের দিন ধার্য থাকলেও তারা আদালতে উপস্থিত হননি। এ নিয়ে তিনটি ধার্য তারিখেই তারা আদালতে অনুপস্থিত ছিলেন। আদালত ৮ জানুয়ারি পরবর্তী তারিখে তাদেরকে আদালতে উপস্থিত হতে আদেশ দিয়েছেন।’    

ইত্তেফাক/এএএম