বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৬ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

চোর ধরতে লাগানো সিসিটিভিই হচ্ছে চুরি!

আপডেট : ৩০ নভেম্বর ২০২২, ২০:১৫

চোর ধরতে দোকানে সিসিটিভি বসিয়েছিলেন। নিশ্চিত ছিলেন, দোকানে চুরির ঘটনা শেষ হবে এ বার। কিন্তু সেই সিসিটিভিই গেল চুরি! একটি, দু’টি নয়, একে বারে ১৩টি সিসিটিভি এ ভাবে চুরি যাওয়ার পর অবশেষে ধরা দিলেন তিনি। একটি সিসিটিভির সংযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার আগে দেখা গেল তার বদন। যা দেখে মাথায় হাত কন্যাকুমারীর ব্যবসায়ীর। কাকে অভিযোগ করবেন, বুঝে উঠতে পারছেন না।

তামিলনাড়ুর কন্যাকুমারীতে প্লাইউডের ব্যবসা তার। কিন্তু দোকানে মাঝেমাঝেই চুরির ঘটনা ঘটছে। চোর ধরতে দোকানে বসিয়েছিলেন সিসিটিভি। কিন্তু আচমকা দোকানে বসানো সিসিটিভিই চুরি যাওয়া শুরু হল।

একে একে ১৩টি সিসিটিভি চুরি যাওয়ার পর ধরা পড়ে চোর। একটি সিসিটিভির সংযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার আগে দেখা যায় একটি বাঁদর তা চুরি করছে! দেখে হতবাক প্লাইউড ব্যবসায়ী বুঝে উঠতে পারছেন না, পুলিশ না বন দফতর। ঠিক কাকে অভিযোগ জানাবেন তিনি।

বাঁদরের বাঁদরামো ভারতে নতুন কোনও ঘটনা নয়। বন, জঙ্গলের পাশাপাশি মানুষের বাসস্থানের আশপাশেও নিত্য তাদের আনাগোনা, ঘোরাফেরা। অনেক সময়ই মানুষকে আক্রমণের ঘটনার কথাও শোনা গিয়েছে। খাবারদাবার চুরিতেও নাম জড়িয়েছে বার বার।

কিন্তু চোর ধরতে দোকানে বসানো সিসিটিভিই চুরিতে জড়িয়ে পড়ে বাঁদরকুল যেন নিজেকেই ছাপিয়ে গিয়েছে। কন্যাকুমারীর ঘটনা তারই হাতেগরম প্রমাণ। ইন্ডিয়া টুডে।

ইত্তেফাক/এএইচপি