শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

পদত্যাগ না করতে গোঁ ধরেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট

আপডেট : ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ২১:৩০

আর্থিক কেলেঙ্কারি সত্ত্বেও পদত্যাগ করবেন না দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাফোসা। তার মুখপাত্রের বরাত দিয়ে বিবিসির এক খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে। প্রেসিডেন্ট রামাফোসার বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনি বিপুল পরিমাণ নগদ অর্থ তার খামার বাড়িতে রেখেছিলেন এবং ওই অর্থ চুরি হওয়ার বিষয়টি ধামাচাপা দিয়েছেন। 

একটি স্বাধীন প্যানেলের তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রেসিডেন্ট রামাফোসা এই ঘটনা ধামাচাপা দিতে তার পদের অপব্যবহার করেছেন এবং সম্ভবত দুর্নীতিবিরোধী আইন ভঙ্গ করেছেন। প্যানেলের প্রতিবেদনটি ইতিমধ্যে পার্লামেন্টে হস্তান্তর করা হয়েছে। এটি যাচাইয়ের পর অভিশংসন প্রক্রিয়া শুরুর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হবে। 

এদিকে রামাফোসার ভাগ্য নির্ধারণে বৈঠকে বসেছেন ক্ষমতাসীন দল আফ্রিকান ন্যাশনাল কংগ্রেসের (এএনসি) শীর্ষ নেতারা। আজ সোমবার দলীয় সিদ্ধান্ত আসতে পারে। তবে রামাফোসার মুখপাত্র ভিনসেন্ট মাগওয়েনিয়া জানিয়েছেন, ত্রুটিপূর্ণ তদন্তের ভিত্তিতে প্রেসিডেন্ট রামাফোসা পদত্যাগ করবেন না। তিনি লড়াই চালিয়ে যাবেন। এএনসির নেতা হিসেবে দ্বিতীয় মেয়াদে প্রেসিডেন্ট হতে চান তিনি। 

দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাফোসা।

খবরে বলা হয়েছে, আলোচিত এই ‘ফার্মগেট কেলেঙ্কারি’র সূত্রপাত হয় গত জুনে। যখন দেশটির সাবেক শীর্ষ গোয়েন্দা কর্মকর্তা আর্থার ফ্রেজার পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন যে, ২০২০ সালে দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে প্রেসিডেন্টের ফালা ফালা ফার্ম থেকে ৪০ লাখ ডলার চুরির ঘটনা ধামাচাপা দেওয়া হয়েছে। 

সাবেক প্রেসিডেন্ট জ্যাকব জুমার ঘনিষ্ঠ মিত্র ফ্রেজার অভিযোগ করেন যে, চুরি যাওয়া এই অর্থ দুর্নীতি এবং অর্থপাচারের মাধ্যমে আয় হতে পারে। তবে প্রেসিডেন্ট রামাফোসা এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন, এগুলো খামারের মহিষ বিক্রির অর্থ ছিল। তার দাবি চুরি যাওয়া অর্থের পরিমাণ কম। 

ইত্তেফাক/এএইচপি