শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২০ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

অস্ট্রেলিয়ার যাদুঘরে পাওয়া গেলো থাইলাসিনের দেহাবশেষ

আপডেট : ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ১৬:৩৯

৮৫ বছর আগে বিলুপ্ত হওয়ার তাসমানিয়ান বাঘের দেহাবশেষের খোজ মিললো অস্ট্রেলিয়ার এক যাদু ঘরের আলমারিতে। জানা যায় তাসমানিয়ান বাঘের সর্বশেষ প্রজাতির দেহাবশেষ এটি। এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ১৯৩৬ সালে দেশটির হোবার্ট চিড়িয়াখানায় বন্দী অবস্থায় মারা যায় থাইলাসিন এবং এর দেহ একটি স্থানীয় যাদুঘরে দেওয়া হয়। ১৯৮৬ সালে প্রাণীটিকে সরকারিভাবে বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়। তবে সম্প্রতি নতুন বেশ কিছু রিপোর্ট বলছে অস্ট্রেলিয়ার পাপুয়া নিউ গিনি এবং তাসমানিয়ায় থাইলাসিনদের জীবাশ্ম পাওয়া গেছে।

বেশ কয়েক বছর ধরেই বিভিন্ন যাদুঘরের কিউরেটর এবং গবেষকরা সফলতা ছাড়াই এর অবশিষ্টাংশের সন্ধান করছিলেন রবার্ট প্যাডেল। ১৯৩৬ সাল থেকে কোনো থাইলাসিন উপাদান রেকর্ড করা হয়নি এবং ধারণা করা হয়েছিল যে থাইলাসিনের দেহটি ফেলে দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

যাদুঘরে পাওয়া আলমারিতে নারী থাইলাসিনের দেহাবশেষ

রবার্ট প্যাডেল জানান, তিনি এবং জাদুঘরের একজন কিউরেটর একটি অপ্রকাশিত ট্যাক্সিডার্মিস্টের প্রতিবেদন খুঁজে পান। এছাড়াও জাদুঘরের শিক্ষা বিভাগের একটি আলমারিতে হারিয়ে যাওয়া নারী থাইলাসিনের একটি নমুনা খুঁজে পান

হাজার হাজার বছর আগে অস্ট্রেলিয়ায় মানবসভ্যতা পা রাখার পর তাসমানিয়ান বাঘের সংখ্যা হ্রাস পায়। এরপর ডিঙ্গো (এক প্রজাতির অস্ট্রেলিয়ান কুকুর) কুকুরের আগমনের পর তাদের সংখ্যা আবারও হ্রাস পায়। তারপর একসময় শুধু তাসমানিয়ার দ্বীপে এগুলোর দেখা মিলতো এবং অবশেষে বিলুপ্তই হয়ে যায়। ১৯৩৬ সালে অস্ট্রেলিয়ার হবার্ট চিড়িয়াখানায় সর্বশেষ বন্দী তাসমানিয়ান বাঘটির মৃত্যু হয়।

ইত্তেফাক/এএইচপি