রোববার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

মেসির গোলে সেমির সুবাতাস পাচ্ছে আর্জেন্টিনা

আপডেট : ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:৪২

প্রথমার্ধেই এগিয়ে ছিলো ১-০ গোলে, দ্বিতীয়ার্ধের ৭৩ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে আর্জেন্টিনাকে ২-০ গোলে এগিয়ে নিলেন লিওনেল মেসি। নেদারল্যান্ডের বিপক্ষে ঠান্ডা মাথার পেনাল্টি থেকে গোল করে আলবিসেলেস্তাদের সেমিফাইনালের আরেকটু কাছে নিয়ে গেলেন মেসি। 

দ্বিতীয় কোয়ার্টারে ফাইনালে বাংলাদেশ সময় আজ রাত ১ টায় নেদারল্যান্ডের মুখোমুখি হয় আর্জেন্টিনা। প্রথমার্ধের ৩৫ মিনিটে গোলের দেখা পায় আর্জেন্টিনা। মেসির পাস থেকে বল জালে জড়ান নাহুয়েল মলিনা। তার গোলে ম্যাচে প্রথমবারের মতো লিড পায় আর্জেন্টিনা। দ্বিতীয়ার্ধের ৭১ মিনিটে ডি বক্সের ভেতর আকুনাকে ফাউল করলে পেনাল্টি পায় আর্জেন্টনা। সেই পেনাল্টি থেকে দলকে এগিয়ে নিতে একটুও ভুল করেননি আর্জেন্টাইন অধিনায়ক মেসি। 

ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে খেলতে থাকে দু'দল। ম্যাচের ৯ মিনিটে বাম দিক থেকে আক্রমণে যায় নেদারল্যান্ড। তবে সুবিধা করতে পারেনি তারা। ম্যাচের ১০ মিনিটে আক্রমণে ওঠে আর্জেন্টিনা। তবে আকুনার বাড়ানো বলে পা ছোঁয়াতে পারেনি কেউ।

এরপর ম্যাচের ১৩ মিনিটে ডি পলের বাড়ানো বল সহজে নিজের গ্লাভসে নেন ডাচ গোলরক্ষক অ্যান্ড্র নোপার্ট। ম্যাচের ১৬ মিনিটে গোছানো আক্রমণে যায় নেদারল্যান্ড। ডান দিক থেকে বাড়ানো বলে মাথা ছোঁয়াতে ব্যর্থ হলে গোল পাওয়া হয় না ডাচদের। ম্যাচের ১৮ মিনিটে মাঝমাঠ থেকে বাড়ানো বল নিয়ন্ত্রণে নিতে ব্যর্থ হয় স্টিভেন বার্গউইন। ম্যাচের ২১ মিনিটে কর্নার আদায় করে নেদারল্যান্ড। তবে তা কাজে লাগাতে পারেনি তারা।

ম্যাচের ২২ মিনিটে ডি বক্সের বাইরে থেকে শট করেন মেসি। তবে তা চলে যায় ক্রসবারের ওপর দিয়ে। ম্যাচের ২৪ মিনিটে গোলের সহজ সুযোগ পায় নেদারল্যান্ড। ডি বক্সের ভেতর থেকে ডিপাইয়ের নেওয়া শট চলে যায় পোস্টের বাইর দিয়ে। ম্যাচের ২৯ মিনিটে বাম দিক থেকে ক্রস বাড়ান গ্যাকপো। তবে তা ক্লিয়ার করে দেন আর্জেন্টিনার ডিফেন্ডাররা। ম্যাচের ৩৩ মিনিটে ডি বক্সের বাইরে থেকে শট করেন ডি পল। তবে তা আটকে দেন অ্যান্ড্র নোপার্ট।

ম্যাচের ৩৫ মিনিটে গোলের দেখা পায় আর্জেন্টিনা। মেসির পাস থেকে বল জালে জড়ান নাহুয়েল মলিনা। তার গোলে ম্যাচে প্রথমবারের মতো লিড পায় আর্জেন্টিনা। এই গোলের মধ্য দিয়ে প্রথম আন্তর্জাতিক গোলের দেখা পান মলিনা।

ম্যাচের ৪০ মিনিটে ডি বক্সের ভেতর থেকে শট করেন মেসি। তবে তা টকে দেন অ্যান্ড্র নোপার্ট। ম্যাচের ৪৩ মিনিটে ফ্রি কিক পায় নেদারল্যান্ড। তবে তা কাজে লাগাতে পারেনি তারা। এরপর আর কোন গোল না হলে এক গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় আর্জেন্টিনা।

বিরতি থেকে ফিরে প্রথম আক্রমণে যায় আর্জেন্টিনা। ম্যাচের ৪৭ মিনিটে কর্নার পায় তারা। তবে কাজে লাগাতে পারেনি তারা। ম্যাচের ৪৮ মিনিটে ডান দিক থেকে ক্রস বাড়ায় গ্যাকপো। তবে তা সহজেই নিয়ের গ্লাভসে নেন এমিলিয়ানো মার্টিনেজ। ম্যাচের ৫৪ মিনিটে অ্যাটাকে যায় ডাচরা। তবে কাজে লাগাতে পারেনি তারা। ম্যাচের ৫৯ মিনিটে কাউন্টার অ্যাতাকে যায় আর্জেন্টিনা। তবে কাজে লাগাতে পারেনি তারা।

ম্যাচের ৬১ মিনিটে ডি বক্সের বাইরে থেকে ফ্রি কিক পায় আর্জেন্টিনা। সেই ফ্রি কিক থেকে মেসির নেওয়া শট অল্পের জন্য চলে যায় ক্রসবারের ওপর দিয়ে।

ম্যাচের ৭১ মিনিটে ডি বক্সের ভেতর আকুনাকে ফাউল করার কারণে পেনাল্টি পায় আর্জেন্টিনা। সেই পেনাল্টি থেকে গোল করে আর্জেটিনার লিড বাড়িয়ে দেন মেসি। তার গোলে ম্যাচে ২-০ তে এগিয়ে যায় আর্জেন্টিনা।

ইত্তেফাক/এসএস