রোববার, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২২ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

রাশিয়ান নারী বিলবোর্ডে বিজ্ঞাপন দিয়ে খুঁজছেন সঙ্গী

আপডেট : ২১ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:০০

রাশিয়ার মারিয়া মোলোনোভা সঙ্গী শূন্যতা দূর করার জন্য যা করেছেন তা অবশ্যই আশ্চর্যজনক। সঙ্গী খুঁজতে বিলবোর্ডে বিজ্ঞাপন দিয়েছেন এই নারী। 

রাশিয়ান এই নারী বেশ ধনী। তার দুটি সন্তানও রয়েছে। কিন্তু সঙ্গী নেই। এছাড়াও ইউক্রেনে যুদ্ধ শুরুর পর নিষেধাজ্ঞার কারণে ডেটিং অ্যাপে সঙ্গী খোঁজার সুযোগ নেই। ২৬ বছর বয়সী এই নারী বিজ্ঞাপন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। 

এছাড়াও ইউক্রেনে যুদ্ধ শুরুর পর নিষেধাজ্ঞার কারণে ডেটিং অ্যাপে সঙ্গী খোঁজার সুযোগ নেই।

তবে কোনো কাগজে বা কোনো ইন্টারনেট ভিত্তিক প্ল্যাটফর্মে নয়, তিনি সরাসরি বিলবোর্ডের মাধ্যমে তার ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন। এতে কাজ হয়েছে মারিয়ার। কিন্তু একটা সমস্যা ছিল। 

কারণ যে তাকে বিয়ে করতে চায় সে ইউক্রেনের নাগরিক। সেরহি খারকুশা নামের এই বিলিয়নিয়ার থাকেন যুক্তরাষ্ট্রে। তার আরেকটি পরিচয় আছে। ইউক্রেনে যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর দেশটির সেনাদের সাহায্য করার জন্য তহবিল সংগ্রহ করেছেন তিনি। 

তবে কোনো কাগজে বা কোনো ইন্টারনেট ভিত্তিক প্ল্যাটফর্মে নয়, তিনি সরাসরি বিলবোর্ডের মাধ্যমে তার ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন।

সেরহি খারকুশা মারিয়াকে বিয়ের প্রস্তাব দেন। বিজ্ঞাপনের জবাবে তিনি বলেছেন, 'ফিরে তাকান, আমি প্রস্তুত।'

মারিয়ার বিলবোর্ড বিজ্ঞাপন নিয়ে আরও কথা বলেছেন সেরহি খারকুশা। তিনি বলেন, 'আমি এমন লোকদের পছন্দ করি না যারা যুদ্ধ এবং রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে সমর্থন করে। তবে আমি একজন রাশিয়ান নারীর সঙ্গে প্রেম করতে চাই। আমার ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের অধিকাংশই রাশিয়ান নাগরিক। আমি যাদের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ তাদের সঙ্গে আড্ডা দেই। আমি যুদ্ধ সমর্থন করি না।'

সেরহি খারকুশা মারিয়াকে বিয়ের প্রস্তাব দেন।

মারিয়াকে পছন্দের কারণ হিসেবে সেরহি খারকুশা বলেন, 'তিনি সাহসী। যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলসে অনেক নারী রয়েছেন। আমি মারিয়াকে দেখেছি, সে সৃজনশীল।'

মারিয়া এই প্রস্তাবে কিছুটা নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। তার মতে, সেরহি খারকুশা এর মাধ্যমে নিজেকে উন্নীত করছেন। এছাড়া সেরহি খারকুশা এখনো মারিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করেননি। 

মারিয়া বলেন, 'সেরহি খারকুশা সত্যিই আমার সম্পর্কে জানতে চান? আমি সন্দেহের মধ্যে আছি। তিনি আমার সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ করলে খুশি হতাম।'

ইত্তেফাক/ডিএস