শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

মার্কিন কংগ্রেসে জেলেনস্কির বক্তৃতা

আপডেট : ২২ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:২০

বুধবার (২১ ডিসেম্বর) ওয়াশিংটন গিয়ে পৌঁছান ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। মার্কিন কংগ্রেসকে তিনি একটি ইউক্রেনের পতাকা উপহার দিয়েছেন। যেখানে ফ্রন্টলাইনের সেনাদের স্বাক্ষর আছে। মার্কিন কংগ্রেস উঠে দাঁড়িয়ে জেলেনস্কিকে স্বাগত জানিয়েছেন। 

বক্তৃতায় একাধিকবার আমেরিকাকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন জেলেনস্কি। পাশাপাশি জানিয়েছেন, ইউক্রেনকে হারানো সম্ভব নয়। ইউক্রেন সে কথা প্রমাণ করে দিয়েছে। 

বুধবার (২১ ডিসেম্বর) ওয়াশিংটন গিয়ে পৌঁছান ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি।

জেলেনস্কির ভাষায়, 'ইউক্রেন কখনো আত্মসমর্পণ করবে না। ইউক্রেন জেগে আছে এবং লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে।' তিনি জানিয়েছেন, মার্কিন কংগ্রেসে বক্তৃতা করতে পেরে তিনি সম্মানিত বোধ করছেন। 

প্রেসিডেন্টের দাবি, মানসিকভাবে রাশিয়াকে পরাজিত করেছে ইউক্রেন। রাশিয়া পিছু হঠতে বাধ্য হয়েছে। অন্যদিকে মার্কিন কংগ্রেস জানিয়েছে, ইউক্রেনকে এক দশমিক সাত ট্রিলিয়ন ডলারের প্যাকেজ দেওয়া হবে। যার মধ্যে ৪৫ বিলিয়ন ডলার মূল্যের সামরিক সাহায্য করা হবে। 

জেলেনস্কির ভাষায়, 'ইউক্রেন কখনো আত্মসমর্পণ করবে না।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আগেই জানিয়েছিলেন, ইউক্রেনকে প্যাট্রিয়ট মিসাইল দেওয়া হবে। এদিন তিনি ফের একবার সে কথা বলেছেন। এক দশমিক আট পাঁচ বিলিয়ন ডলার খরচ করা হবে প্যাট্রিয়ট দেওয়ার জন্য।

অত্যাধুনিক এই মিসাইল একদিকে এয়ার ডিফেন্স সিস্টেমের কাজ করে, অন্যদিকে শত্রুর ঘাঁটিতে আঘাতও করতে পারে। দীর্ঘদিন ধরেই ইউক্রেন এই মিসাইল চাইছিল। জার্মানি এই মিসাইল পোল্যান্ডকে দিতে চাইলেও ইউক্রেনকে দিতে রাজি হয়নি। পরে অবশ্য ন্যাটোর বৈঠকে ইউক্রেনকে এই মিসাইল দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। 

ইউক্রেনকে প্যাট্রিয়ট মিসাইল দেওয়া হবে।

পূর্ব ইউক্রেনের বাখমুটে দীর্ঘদিন ধরে লড়াই চলছে ইউক্রেন এবং রাশিয়ার সেনাদের। সেখানে ফ্রন্টলাইনে যুদ্ধ করা সেনাদের সই করা একটি জাতীয় পতাকা মার্কিন কংগ্রেসকে এদিন উপহার দিয়েছেন জেলেনস্কি। 

তিনি জানিয়েছেন, আগামী বছর আমেরিকার সাহায্যে ইউক্রেনের মানুষকে স্বাধীনতা উপহার দেবেন ইউক্রেন প্রেসিডেন্ট। তার বক্তব্য, 'আমরা এ বছরে ক্রিসমাস পালন করবো। হয়তো সব জায়গায় বিদ্যুৎ নেই। কিন্তু তা সত্ত্বেও ক্রিসমাসের আনন্দ থেকে আমাদের কেউ বঞ্চিত করতে পারবে না।'

পূর্ব ইউক্রেনের বাখমুটে দীর্ঘদিন ধরে লড়াই চলছে ইউক্রেন এবং রাশিয়ার সেনাদের।

এদিন জেলেনস্কিকে পাশে নিয়ে সাংবাদিক বৈঠক করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। জেলেনস্কিকে তিনি একটি ১০ পয়েন্টের শান্তি প্রস্তাব দিয়েছেন। কীভাবে ইউক্রেন ঘুরে দাঁড়াবে, সে কথাই বলা আছে সেখানে। 

বাইডেন জানিয়েছেন, ইউক্রেনকে কখনো একা লড়তে হবে না। আমেরিকা সবসময় তার পাশে থাকবে। ভ্লাদিমির পুতিন এই যুদ্ধ টেনে নিয়ে যাচ্ছেন বলে এদিন অভিযোগ করেছেন বাইডেন।

এদিন জেলেনস্কিকে পাশে নিয়ে সাংবাদিক বৈঠক করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

দেশের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা অনেকটাই উন্নত হয়েছে বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন জেলেনস্কি। কিন্তু তা কীভাবে সম্ভব হয়েছে, সে কথা বলতে চাননি তিনি।

ইত্তেফাক/ডিএস