বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

পাকিস্তানে সংখ্যালঘু হত্যায় মানবাধিকার সংস্থার নিন্দা

আপডেট : ১৮ জানুয়ারি ২০২৩, ২০:৫০

পাকিস্তানে একটি খ্রিস্টান মেয়েকে অপহরণের পর হত্যার নিন্দা করেছে হিউম্যান রাইটস ফোকাস পাকিস্তান (এইচআরএফপি)। এইচআরএফপি'র প্রকাশিত বিবৃতি অনুসারে, ভুক্তভোগী ও তার বাবার বিচার করার জন্য কর্তৃপক্ষের কাছে অনুরোধ করেছে৷ এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এএনআই। 

জানা যায়, গত ২৫ ডিসেম্বর থেকে নিখোঁজ হয় খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী গুলনাজ এবং তার বাবা। হাসপাতাল থেকে ফেরার সময় গুলনাজ এবং তার বাবাকে অপহরণ করা হয়। ২৭শে ডিসেম্বর গুলনাজকে এক খাল থেকে নিহত অবস্থায় পাওয়া যায় মেয়েটিকে। তবে নিহতের বাবাকে এখনও উদ্ধার করা যায় নি। 

এইচআরএফপি টিম, তাদের বাড়িতে পরিবারের সঙ্গে দেখা করেছে, পুলিশের সঙ্গেও দেখা করেছে। হাসপাতাল পরিদর্শন করেছে এবং আশেপাশের বিভিন্ন লোকের কাছ থেকে ঘটনার বিষয়ে খোঁজখবর নিয়েছে। 

এফআইআর এ বলা হয়েছে, দুজনকেই অপহরণ করা হয়েছিল এবং গুলনাজকে আক্রমণ করার পর তাকে হত্যা করা হয়। সংস্থাটি নিহতের পিতা গুল হামিদকে খুঁজে না পাওয়া পর্যন্ত এবং অপরাধীদের বিচারের আওতায় আনা না হওয়া পর্যন্ত ভুক্তভোগীর পরিবারকে আইনি সহায়তা এবং অন্যান্য তাৎক্ষণিক সহায়তা নিশ্চিত করবে বলে জানায়।

মানবাধিকার সংস্থাটির প্রেসিডেন্টের পক্ষ থেকে বলা হয়, পাকিস্তানে সংখ্যালঘু মেয়েদের অপহরণ এখনো বন্ধ হয়নি বা কমেনি। সংখ্যালঘুদের অবস্থা আগের মতই খারাপ রয়েছে। গুলনাজের বাবা গুল হামিদ এখনো নিখোঁজ। পরিবারের তরফ থেকে আশঙ্কা করা হচ্ছে, তাকে হত্যা করা হতে পারে বলে।

এর আগে , গত সেপ্টেম্বরে ইউরোপীয় পার্লামেন্টের মানবাধিকার বিষয়ক সাব কমিটির সদস্যরা পাকিস্তান সরকারকে মানবাধিকার ইসুতে সময়োপযোগী সংস্কার এবং আইনি পরিবর্তন আনতে ও সেগুলিকে সুনির্দিষ্ট ভাবে প্রয়োগ করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তা সত্বেও পাকিস্তানের সংখ্যালঘু হত্যার পরিমাণ ক্রমশ বাড়ছে।

ইত্তেফাক/এএইচপি