বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

অনূর্ধ্ব-১৯ নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

গ্রুপ-সেরা হয়েই পরের পর্বে বাংলাদেশ

আপডেট : ১৯ জানুয়ারি ২০২৩, ১১:২০

অস্ট্রেলিয়া ও শ্রীলঙ্কাকে হারিয়েই অনূর্ধ্ব-১৯ নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পরের পর্ব নিশ্চিত করেছিল বাংলাদেশের মেয়েরা। গতকাল যুক্তরাষ্ট্রের মেয়েদের বিপক্ষে গ্রুপের শেষ ম্যাচটি বাংলাদেশের জন্য ছিল গ্রুপসেরা হওয়ার লড়াই। সেই লড়াইয়ে জয়ীও হয়েছে দিশা বিশ্বাসের দল। পুঁচকে যুক্তরাষ্ট্রকে হারিয়ে তিন ম্যাচের তিনটিতেই জিতে গ্রুপসেরা হয়েই পরের ধাপে বাংলাদেশের মেয়েরা।

যুক্তরাষ্ট্রকে হারিয়েছে ঠিক, তবে যতটা সহজ জয় প্রত্যাশিত ছিল, ততটা সহজে জয় আসেনি। বরং কাল দক্ষিণ আফ্রিকার বেনোনির উইলোমুর পার্কের দুই নম্বর মাঠে পুঁচকে যুক্তরাষ্ট্রকে হারাতে ভালোই বেগ পেতে হয়েছে। দিশার দল শেষ পর্যন্ত জিতেছে ৫ উইকেটে।

প্রথমে ব্যাট করে যুক্তরাষ্ট্র ৩ উইকেট হারিয়ে গড়েছিল ১০৩ রানের পুঁজি। আগের দুই ম্যাচে ১৩২ ও ১৬৫ রান করা বাংলাদেশের জন্য ১০৪ রানের লক্ষ্যটা মামুলিই ছিল। কিন্তু ছোট্ট এই লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ২১ রানেই ২ উইকেট হারিয়ে ফেলে বাংলাদেশের বাচ্চা-বাঘিনীরা। দুই ওপেনার আফিয়া প্রত্যাশা (১০ বলে ৭ রান) ও সুমাইয়া আক্তার (১২ বলে ১০) দ্রুত ফিরে যাওয়ায় একটু হলেও শঙ্কার মেঘ জমে বাংলাদেশের ড্রেসিংরুমে। দিলারা আক্তার ও স্বর্ণা আক্তারের ৩৮ রানের জুটিতে সেই শঙ্কা কেটে গেলেও ৫ রানের ব্যবধানে দুজনেই আউট হলে আবার তা ফিরে আসে। দলকে ৫৯ রানে রেখে আউট হন স্বর্ণা। আউট হওয়ার আগে তিনি এক ছক্কা ও ২ চারে ১৪ বলে ২২ রান করেন। যা দলের পক্ষে সর্বোচ্চ। এরপর দলকে ৬৪ রানে রেখে ফিরে যান দিলারা। দুই চারের সহায়তায় তিনি ১৫ বলে ১৭ রান করেন।

এরপর রাবেয়া খাতুন ও অধিনায়ক দিশা মিলে পঞ্চম উইকেটে ২২ রানের জুটি গড়ে দলকে জয়ের খুব কাছে নিয়ে যান। দলীয় ৮৬ রানের মাথায় আউট হন দিশা, ১৭ বলে ১০ রান করে। মিষ্টি শাহাকে সঙ্গে নিয়ে ১৫ বল বাকি থাকতেই দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন রাবেয়া। দুই চারের সাহায্যে ২৪ বলে ১৮ রানের ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকেন তিনি। তার সঙ্গী মিষ্টি অপরাজিত থাকেন ১৩ বলে ১৪ রান করে। এমনিতে মিষ্টি সাহা ওপেনার। কিন্তু ওপেনিংয়ে আগের দুই ম্যাচে ব্যর্থ হওয়ায় কাল তাকে লোয়ার মিডল অর্ডারে নামানো হয়। নতুন পজিশনে নিজের দায়িত্বটা ভালোভাবেই সামলেছেন তিনি।

এর আগে ১১ রানের মাথায়ই টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামা যুক্তরাষ্ট্রের উদ্বোধনী জুটি ভেঙে দেন দিশা। তিনি ফিরিয়ে দেন লাস্যা প্রিয়া মুল্লাপুডিকে (৫)। এরপর বাংলাদেশি বোলারদের হতাশ করে দ্বিতীয় উইকেটে ৫৭ রানের জুটি গড়েন দিশা ধিনগ্রা ও স্নিগ্ধা পল। তবে বড় জুটি গড়লেও তারা ব্যাটিং করেন ধীরগতিতে। দিশা ধিনগ্রাকে (৩৯ বলে ২০) দুর্দান্তভাবে রানআউট করে এই জুটি ভেঙে দেন ফিল্ডার স্বর্ণা। ঠিক পরের বলেই স্নিগ্ধা পলকে (৩৭ বলে ২৬ রান) বিদায় করেন দিশা। দলকে ঠিক ৬৮ রানে রেখে ফিরে যান দিশা ধিনগ্রা ও স্নিগ্ধা পল। সেখান থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে ১০৩ পর্যন্ত নিয়ে যান ইশানি ভাগেলা ও অধিনায়ক গীতিকা কোদালি। ইনিংসের ঠিক শেষ বলে গীতিকাকে আউট করেন মারুফা আক্তার। তিনি করেন ১৬ বলে ১৬ রান। ইশানি ভাগেলা অপরাজিত থাকেন ১৭ বলে ১৭ রান করে।

বল হাতে ৪ ওভারে ১৩ রান দিয়ে ২ উইকেট, ব্যাট হাতে ১০ রান—ম্যাচসেরার পুরস্কারটি উঠেছে বাংলাদেশ অধিনায়ক দিশা বিশ্বাসের হাতে।

ইত্তেফাক/এসএস