বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৯ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

ফসলি জমি রক্ষা করতে গিয়ে প্রাণ গেলো কৃষকের

আপডেট : ১৯ জানুয়ারি ২০২৩, ১৯:৫১

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলায় কৃষিজমির মাটি রক্ষা করতে গিয়ে খোকন মিয়া (৬২) নামের এক কৃষক নিহতের ঘটনা ঘটেছে। বুধবার (১৮ জানুয়ারি) রাত ৮টার দিকে উপজেলার গকুলনগর গ্রামের হাসান ইটভাটায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত কৃষক খোকন মিয়া উপজেলার নবীপুর পূর্ব ইউনিয়নের গকুলনগর এলাকার আব্দুর রহমানের ছেলে। 

নিহতের স্বজনদের অভিযোগ, হাসান ইটভাটার মালিক কামাল উদ্দিন খোকন মিয়ার জমি বন্ধক নিয়েছিলেন। অনেকদিন ইটভাটা বন্ধ থাকায় কামাল উদ্দিন স্থানীয় গিয়াস উদ্দিনের কাছে ইট তৈরির মাটি বিক্রি করে দেন। কিন্তু গিয়াস ও তার ছেলে ইট তৈরির মাটির পাশাপাশি আশেপাশের ফসলি জমির মাটি কেটে নিয়ে যাচ্ছিলো। এ সময় নিহত খোকন বাধা দিতে গেলে গিয়াস উদ্দিন ও তার লোকজন খোকন মিয়াকে বেধড়ক মারধর করে। একপর্যায়ে খোকন মিয়া মাটিতে লুটিয়ে পড়লে স্থানীয়রা উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

স্থানীয় কৃষকরা জানায়, প্রতিনিয়ত রাতের আঁধারে ফসলি জমি ও গোমতী নদীর তীরের মাটি কেটে নিয়ে যাচ্ছে। এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ দেওয়া হলেও এখনো পর্যন্ত অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে দৃশ্যমান কোনো ব্যবস্থা নেয়নি প্রশাসন। প্রশাসন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিলে আজ হত্যার ঘটনা ঘটতো না। 

হাসান ইটভাটার মালিক কামাল উদ্দিন বলেন, অসুস্থ থাকায় দীর্ঘদিন ধরে ইটভাটার কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। ফলে ইটভাটার জমিতে থাকা ইট তৈরির মাটিগুলো গিয়াস উদ্দিন কাছে বিক্রি করে দেই। জমির মালিকরা আমাকে জানান ইট তৈরির মাটির পাশাপাশি  তাদের জমির মূল মাটি কেটে নিয়ে যাচ্ছে গিয়াস ও তার ছেলে। তখন জমির মালিকদের বাধা দিতে বলি। বর্তমানে ঢাকায় চিকিৎসাধীন থাকায় এর বেশি কিছু জানি না। 

মুরাদনগর থানার ওসি কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, এখনো পর্যন্ত কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ইত্তেফাক/বুখারী/পিও