বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৯ মাঘ ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

সময়টা অল্প, আমি আর লিটন চেষ্টা করছি : রিজওয়ান

আপডেট : ২৩ জানুয়ারি ২০২৩, ১০:২৪

গত আসরের চ্যাম্পিয়ন দল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের এবারের আসরের শুরুটা ভালো হয়নি। প্রথম তিন ম্যাচ হেরে তালিকার দৌড় থেকে কিছুটা সরে পড়েছিল। তবে টানা চট্টগ্রাম পর্ব শেষে আবার শিরোপা জয়ের লড়াইয়ে ফিরেছে ইমরুল কায়েসের দল কুমিল্লা। জয়ের ধারা অব্যাহত রাখার লক্ষ্য নিয়ে আজ ঢাকা ডমিনেটর্সের মুখোমুখি হচ্ছে কুমিল্লা।

এদিকে চট্টগ্রাম থেকে ফিরে গত দুই দিন দলগুলো অনুশীলনে ব্যস্ত সময় পার করেছে। গতকাল রবিবার অনুশীলনের এক ফাঁকে মিরপুরে একাডেমি মাঠে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেছেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের পাকিস্তানি ক্রিকেটার মোহাম্মদ রিজওয়ান। চট্টগ্রাম পর্ব থেকেই কুমিল্লা দলে আছেন রিজওয়ান। পাকিস্তানি এ ওপেনার ব্যাটিংও করছেন দারুণ। যদিও ঐ ম্যাচে রান করতে পারেননি। পরের ম্যাচগুলোতে ছিলেন ধারাবাহিক।

এখন অবধি এবারের বিপিএলে চার ম্যাচে মাঠে নেমেছেন রিজওয়ান। তার উদ্বোধনী সঙ্গী ছিলেন লিটন দাস। তার ৭০ ও ৪০ রানের দারুণ দুটি ইনিংসও কাছ থেকে দেখেছেন রিজওয়ান। লিটন ভালো ফর্মে আছেন, বলছেন রিজওয়ানও। তিনি বলেন, ‘সবাই জানে লিটন বাংলাদেশের সুপারস্টার। বাংলাদেশের হয়ে গত কয়েক বছর ও অনেক ভালো খেলছে। এখন অনেক ভালো ফর্মে আছে। আলহামদুলিল্লাহ, আমি আর লিটন চেষ্টা করছি। সময়টা অল্প, তবে আমরা চেষ্টায় ত্রুটি রাখছি না। আমরা চেষ্টা করছি দলের অন্যদের কাজ সহজ করে দেওয়ার।’

এসময় ‘অ্যাঙ্করিং’ করাকে কখনো কখনো বিব্রতকরও বলছেন রিজওয়ান, ‘এই ভূমিকা পালন করা অনেক কঠিন। তবে আমি তো জানি কী করতে হবে। দল আমার কাছে যা চায় তা-ই করব। কোচ, অধিনায়ক, দলের মালিক—সবাই আমার পারফরম্যান্সে খুশি। সবার পারফরম্যান্সেই।’

‘অ্যাঙ্করিং রোল যে-ই পালন করুক। কন্ডিশন ও প্রতিপক্ষ অনুযায়ী খেলতে হবে। মাঝে মাঝে একটু বিব্রত হতে হয়। টি-টোয়েন্টিতে সবাই চার-ছক্কা চায়, ৩৫ বলে ৬০-৭০ রান চায়। তবে আমার কাছে কীভাবে ম্যাচ জেতা যায়, আমি কীভাবে অবদান রাখতে পারি এটাই গুরুত্বপূর্ণ।’

কথা বলার আগেই রিজওয়ান জানান, ‘আমি উর্দুতে কথা বলব। কারণ বাংলা পারি না। শুধু এটা পারি-কেমন আছো? আমি ভালো আছি। অবশ্য বাংলা শেখার চেষ্টা করছি। ভালো আছি, কেমন আছো, ভালো খুব ভালো।’ তবে ইংরেজিতে করা প্রশ্নের জবাব ইংরেজিতেই দিয়েছেন তিনি।

ইত্তেফাক/এসএস