বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

অপো রেনো এইট টি স্টিচ ডিজাইন: ফ্যাশন স্টেটমেন্টে নতুন মাত্রা

আপডেট : ০৭ জুন ২০২৩, ১৪:২১

এখন অনেকেই বিশ্বাস করে যে প্রযুক্তির সাথে ফ্যাশন গভীরভাবে সম্পৃক্ত। কিন্তু, এর মানে আসলে কি? এটা বুঝতে আমাদের একটু পেছনে ফিরে ফ্যাশনের ইতিহাস সম্পর্কে জানতে হবে। প্যালিওলিথিক যুগে (যাকে আমরা প্রাচীন প্রস্তর যুগ অথবা ‘ওল্ড স্টোন এজ’ হিসেবেও চিনে থাকি) পশুর চামড়া অথবা গাছের ছাল ব্যবহার করে পরিধানযোগ্য বস্ত্র বানানো হতো। সেখান থেকেই শুরু হয় সেলাইয়ের (স্টিচ) প্রচলন। আধুনিকতার আবির্ভাবে এই সেলাইয়ের শিল্প সময়ের সাথে বিভিন্নভাবে বিকশিত হয়েছে। সেলাইয়ের নৈপুণ্যের মাধ্যমে এখন তৈরি করা যায় নতুনত্বে ভরা নানান রকমের সব ফ্যাশনেবল জিনিসপত্র।

সেলিব্রিটি হোক কিংবা সাধারণ মানুষ, সকলের পরনে অথবা হাতে দেখা যায় সেলাইয়ের (স্টিচ) কারুকার্যে ভরা বিভিন্ন জিনিসপত্র, যা দেখে স্পষ্ট বোঝা যায় যে এ যুগের ডিজাইনাররা স্টিচিংয়ের শিল্পকে নতুন এক উচ্চতায় নিয়ে গেছে। তাছাড়া, এ যুগের ফ্যাশন সচেতন তরুণদের মাঝে সেলাইয়ের কারুকার্যে ভরা জুতো, মানিব্যাগ ও জ্যাকেটের উঠতি চাহিদা লক্ষ্য করলে বলা যায় যে, স্টিচিংয়ের প্রতি এই প্রবণতা কিছুটা নতুনও বটে। এর অন্যতম কারণ হলো সেলাই অথবা স্টিচিংয়ের কাজ যেকোনো কিছুতেই এক অনন্য মাত্রা যোগ করে, তা হোক মানিব্যাগ কিংবা স্মার্টফোন।  

এখন আসা যাক প্রযুক্তির কথায়। প্রযুক্তির (অথবা স্মার্টফোনের) সাথে ফ্যাশন তাহলে কীভাবে সম্পৃক্ত? 

স্টিচিংয়ের এই সৌন্দর্য যদি স্মার্টফোনের ডিজাইনের মধ্যেও পাওয়া যায়, তাহলে কেমন হবে? নিজের কল্পনাশক্তি কাজে না লাগাতে চাইলেও উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই, কারণ বাজারে আসছে অপো’র দুর্দান্ত ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইস Reno8 T (অপো রেনো এইট টি)। এই ফোন মূলত নান্দনিকতা ভালোবাসেন এমন ব্যবহারকারীদের জন্য ডিজাইন করা হয়েছে।

ফাইবারগ্লাস লেদার সমৃদ্ধ রেনো সিরিজের সর্বশেষ এই ডিভাইসটিতে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে সেলাইয়ের কারুকার্য, যা ডিজাইনের নান্দনিকতায় যোগ করেছে নতুন মাত্রা। ফোনের চারপাশে প্লাস্টিক এজিং অপসারনের জন্য Reno8 T তৈরি করার সময় অবলম্বন করা হয়েছে নতুন এক কৌশল। পাশাপাশি, স্টিচিং আর্ট থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে Reno8 T’র পেছনে ক্যামেরার চারপাশে থাকছে এক অভিনব স্টিচিং প্যাটার্ন, যার ফলে টেকপ্রেমী ব্যবহারকারীরা পাবেন অনেক ধরনের সুবিধা। ফাইবারগ্লাস লেদারের ওপর স্টিচ ডিজাইনের প্রয়োগ এই প্রথম। ব্যবহারকারীদের জন্য প্রিমিয়াম অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করার জন্য চমৎকার এই ডিজাইনটি এমব্রসিং প্রক্রিয়ার মাধ্যমে করা হয়েছে। স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের ফ্যাশন স্টেটমেন্টে নতুন মাত্রা যোগ করতে লেদার স্টিচিং ও লেয়ারিংয়ের সমন্বয়ে অপো এই ডিভাইসের ক্যামেরার চারপাশে ব্যবহার করেছে টেক্সচার্ড ডিজাইন।
 
নতুন এই স্টিচিং ডিজাইন ব্যবহারকারীদের জন্য নিশ্চিত করবে বেশ কিছু সুবিধা। প্রথমত, সার্বিক অভিজ্ঞতা উন্নত করার পাশাপাশি নিজের স্টাইল ও পছন্দ অনুযায়ী কাস্টমাইজ করার সুযোগ থাকবে এই ফোনে। স্টিচিং ডিজাইনের কারণে আপনার লুকে আসবে নতুনত্ব। লেদারের যেকোনো প্রোডাক্ট যেভাবে আমাদের ফ্যাশন স্টেটমেন্টে নতুন মাত্রা যোগ করে, ঠিক একইভাবে এই ফোন আমাদের ব্যাক্তিগত স্টাইলকে সবার সামনে নিখুঁতভাবে তুলে ধরতে সাহায্য করবে।  

কিন্তু এই ডিজাইন আপনার নিজস্ব ফ্যাশন স্টেটমেন্টের উর্ধ্বে গিয়ে আপনার জন্য নিশ্চিত করবে এক আরামদায়ক ও দুশ্চিন্তা মুক্ত স্মার্টফোন অভিজ্ঞতা। ব্যবহারকারীরা পাবেন আরামদায়ক গ্রিপ ও যেকোনো ধরনের ড্যামেজের বিরুদ্ধে সুরক্ষা। ফাইবারগ্লাস ডিজাইনের মাধ্যমে ফোনের প্লাস্টিক এজিং সমস্যা সমাধান করা হয়েছে, যার ফলে ডিভাইসটি ধরতে অত্যন্ত আরামদায়ক। এছাড়া, স্টিচ ডিজাইনের কারণে ফোনটি দেখতে খুব আকর্ষণীয় লাগে এবং ফোনটি হাত থেকে পড়ে গেলেও চিন্তার কিছু নেই।  

নানান ধরনের সুবিধা সমৃদ্ধ অপো Reno8 T স্মার্টফোনটি হাতে থাকলে যেকোনো লুকে আপনাকে দেখাবে দুর্দান্ত। ফাংশনালিটি (কার্যকারিতা) ও ডিজাইনের অপরূপ সমন্বয়ের মাধ্যমে তৈরি করা অপো Reno8 T নিঃসন্দেহে বাজারের অন্যান্য ফোনের থেকে আলাদা।

ইত্তেফাক/এএইচপি

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন