বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

'পরী' দাবি করে ছবি পোস্ট মেক্সিকোর প্রেসিডেন্টের

আপডেট : ০১ মার্চ ২০২৩, ১২:৩৩

রাতের অন্ধকার। একটি গাছের গুঁড়ি থেকে একটি নারী চিত্র উঁকি দিচ্ছে। চেহারা-দেহ পরিষ্কার নয়। চোখ দুটো জ্বলছে। আর মাথা ভর্তি সাদা চুল। টুইটারে প্রকাশিত একটি ছবিতে এমন চিত্র উঠে এসেছে। দাবি করা হচ্ছে, ছবিতে যে নারী চরিত্রটি দেখা যাচ্ছে তা আসলে 'পরী'। হিন্দুস্তান টাইমসের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ছবিটি সাধারণ কেউ প্রকাশ করেনি। তিনি মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ ওব্রাডোর। নারীটিকে 'পরী' বলে দাবিও করেন তিনি। ছবিটি শেয়ার করা টুইটার পোস্টে বেশ সাড়া পড়েছে। গত রোববার (২৬ ফেব্রুয়ারি) থেকে মঙ্গলবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা পর্যন্ত এটি ৯০ লাখেরও বেশি বার দেখা হয়েছে।

প্রেসিডেন্ট ওব্রাডর সেই টুইটার পোস্টে আরেকটি ছবি যোগ করেছেন। এটি প্রাচীন মায়া সভ্যতার একটি মূর্তি। পোস্টে তিনি লিখেছেন, 'মায়া রেললাইনের নির্মাণস্থল থেকে তোলা দুটি ছবি শেয়ার করছি। আমাদের একজন প্রকৌশলী তিন দিন আগে এটি তুলছিলেন। মনে হচ্ছে এটা একটা অ্যালাক্স (পরী)।' 

মায়া সভ্যতার বিশ্বাস অনুসারে অতিপ্রাকৃত চরিত্র বা আত্মাকে বলা হয় অ্যালাক্স বা 'পরী'। তারা মানুষকে ভয় দেখাতে খুব ভালোবাসে। কখনও কখনও তারা মানুষের জিনিসপত্রও লুকিয়ে রাখে। অনেকে অ্যালেক্সকে খুশি রাখতে বিভিন্ন জিনিস উৎসর্গ করে।

প্রাচীন সংস্কৃতি ও বিশ্বাসের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে মেক্সিকান প্রেসিডেন্ট একটি টুইটার পোস্টে লিখেছেন, 'সবকিছুই রহস্যে আচ্ছন্ন।' মায়া সভ্যতা ৩০০ থেকে ৭০০ খ্রিস্টপূর্বাব্দের মধ্যে ইউকাটান উপত্যকা ও আশেপাশের অঞ্চলে শীর্ষে পৌঁছেছিল। এই উপত্যকার একটি বড় অংশ মেক্সিকোতে পড়ে। 

১৬ শতকে তৎকালীন স্প্যানিশ সাম্রাজ্য এই অঞ্চলটি দখল করে। যাইহোক অনেক বাসিন্দা এখনও মায়া সংস্কৃতি, ভাষা, খাদ্য, পোশাক ও ধর্মীয় রীতিনীতি মেনে চলে। এমনকি তাদের বংশধররাও এই অঞ্চলে বেঁচে আছে বলে মনে করা হয়।

ইত্তেফাক/ডিএস