রোববার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১
The Daily Ittefaq

হাট ইজারা নিয়ে পৌর মেয়র ও নাগরিক কমিটি মুখোমুখি

আপডেট : ০৯ মার্চ ২০২৩, ১৭:২১

জয়পুরহাটের পাঁচবিবি হাট ইজারা নিয়ে নাগরিক কমিটি ও পৌর মেয়র পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন করেছেন। বৃহস্পতিবার (৯ মার্চ) সকাল ১১টার দিকে দুই পক্ষ মুখোমুখি অবস্থান নেয়।

নাগরিক কমিটি বলছেন, কম মূল্যে হাট দিয়ে পৌরবাসীকে উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে। অপরদিকে পৌর মেয়র বলেছেন, সকল নিয়ম মেনে হাট ইজারা দেওয়া হয়েছে।

পাঁচবিবি গোহাটা চত্বরে পাঁচবিবি নাগরিক কমিটির আহবায়ক ও পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক সিরাজুল ইসলাম বলেন, উত্তরাঞ্চলের বৃহত্তর গো-মহিশের হাট পাঁচবিবি। এ বছর এ হাটটি ৫ কোটি টাকায় ইজারা হতো কিন্তু পৌর সভার মেয়র আলহাজ্ব হাবিবুর রহমান হাবিব গোপনে ঢোঁল শহরত নোটিশ বোর্ডে টেন্ডার বিজ্ঞপ্তি না দিয়ে বা মাইকিং না করে মাত্র আড়াই কোটি টাকায় পাঁচবিবি (বালিঘাটা) হাট ইজারা দিয়েছেন। ফলে পাঁচবিবি পৌরবাসী বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড থেকে বঞ্চিত হবে। পৌরবাসীর স্বার্থে আমরা অবিলম্বে হাট ইজারা বাতিল করে নতুন করে হাট ইজারা টেন্ডার করার দাবি জানাচ্ছি। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন নাগরিক কমিটির যুগ্ম আহবায়ক ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি এস,কে আব্দুল হক, পৌর কাউন্সিলর ও জেলা স্বেচ্ছা স্বেচ্ছালীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আরিফ রাব্বানী ইস্তিসহ অনেকে। 

অপরদিকে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় পাঁচবিবি পৌর মেয়র আলহাজ্ব হাবিবুর রহমান হাবিব তার কার্যালয়ে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে বলেন, নাগরিক কমিটিতে যারা আছে তারা ছোট ছেলে। এদের একটি অপশক্তি ব্যবহার করছে। আমি ঐ অপশক্তির দ্রুত মুখোশ খুলে দিব। পাঁচবিবি হাটের টেন্ডার বাতিলের প্রশ্নই আসে না। এটি অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন পৌর প্যানেল মেয়র মোশাঈদ আল আমীন সাদ।

ইত্তেফাক/পিও