রোববার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১
The Daily Ittefaq

‘আলোকিত নারী সম্মাননা’ পেলেন ১৫ নারী

আপডেট : ১১ মার্চ ২০২৩, ১১:১২

‘আলোকিত নারী সম্মাননা’ পেয়েছেন ১৫ জন বিশিষ্ট নারী ব্যক্তিত্ব। শুক্রবার (১০ মার্চ) এ উপলক্ষে রাজধানীর ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্সে আয়োজিত ‘নারীর ক্ষমতায়নে বিশ্বের রোল মডেল বাংলাদেশ’ শীর্ষক আলোচনা সভা ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এ সময় তাদের হাতে সম্মাননা তুলে দেওয়া হয়।

আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে শেরে-বাংলা এ কে ফজলুল হক গবেষণা পরিষদ ও ইন্ডিয়া বাংলাদেশ কালচারাল কাউন্সিল যৌথভাবে এ সম্মাননা দেয়।

আলোকিত নারী সম্মাননা-২০২২ পেয়েছেন যারা- মুক্তিযুদ্ধ ও নারী আন্দোলনে আইভী রহমান (মরণোত্তর), কথাসাহিত্যে সেলিনা হোসেন, মহান মুক্তিযুদ্ধে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সংসদ সদস্য আরমা দত্ত, সম্পাদনায় ও নারী অধিকার বাস্তবায়নে দৈনিক ইত্তেফাক ও পাক্ষিক অনন্যা সম্পাদক তাসমিমা হোসেন, ফোক সংগীতে সংসদ সদস্য মমতাজ বেগম, নারী উদ্যোক্তা ও সমাজসেবায় কণা রেজা, নারী সাংবাদিকতায় ফরিদা ইয়াসমিন, আইন ও সমাজসেবায় অ্যাড. নাহীদ সুলতানা যুথী, কবি ও লেখক ফিরোজা পারভীন, কর্মসংস্থান ও অর্থনীতি উন্নয়নে আফরোজা বেগম, ব্যবসা বাণিজ্য ও সমাজসেবায় ড. মনোয়ারা হাকিম আলী, শিক্ষা ও সমাজসেবায় লুৎফুন নেসা ইসলাম, উচ্চশিক্ষা বিস্তারে প্রফেসর ড. হামিদা খানম, চলচ্চিত্র অভিনয়ে অঞ্জনা সুলতানা ও সেরা চলচ্চিত্র নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বিচারপতি এস এম মজিবুর রহমান বলেন, ‘নারীকে হতে হবে শক্তিশালী। আগে নারীরা বিভিন্ন কর্মে পিছিয়ে থাকলেও এখন অনেকটাই বদলে গেছে চিত্র। আমাদের দেশে নারী আজ প্রধানমন্ত্রী, স্পিকার, মন্ত্রী-এমপি, এসপি, ম্যাজিস্ট্রেট। সকল ক্ষেত্রে নারীরা এগিয়ে এসেছে। কোনো কোনো ক্ষেত্র নারীরা এগিয়ে আছে, কোনো কোনো ক্ষেত্রে পুরুষ। চলমান গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় নারীরা আরও এগিয়ে যাবে।’

বক্তব্য রাখছেন প্রধান অতিথি বিচারপতি এস এম মজিবুর রহমান। ছবি: ইত্তেফাক

নারীর ক্ষমতায়নের পথ সুগম করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছেন উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী নারীদের ক্ষমতায়নে বিশ্বাসী। তিনি সকল ক্ষেত্রে নারীদের গুরুত্ব ও প্রাধান্য দেন।’

সাবেক সেনাপ্রধান লে. জে. হারুন-অর-রশীদ বলেন, ‘বাংলাদেশে নারীরা অনেক এগিয়েছে। তারা রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ নানা পদে আছে। আমাদের অনেক অগ্রগতির পেছনে নারীদের হাত আছে।’

বক্তব্য রাখছেন সাবেক সেনাপ্রধান লে. জে. হারুন-অর-রশীদ। ছবি: ইত্তেফাক

তবে নানা দিক দিয়ে নারীরা পিছিয়ে আছে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের দেশে প্রায় ১৭ কোটি মানুষ। এর বৃহত্তর অংশ নারী। অর্থাৎ পুরুষের চেয়ে নারীর সংখ্যা বেশি। কিন্তু দেশে পুরুষ ভোটার বেশি। নারীরা অনেক জায়গায় এখনো পিছিয়ে আছে।’

ঢাকা শহরে নারী সমাজের চিত্র আর গ্রামীণ সমাজের চিত্র অনেক ভিন্ন মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘প্রায় ৯ কোটি নারীকে সমতায় আনতে হবে। কিছুদিন আগেই ঢাকায় মেট্রোরেল চালু হলো, যেখানে ২৫ জন চালক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে একজন মাত্র নারী। নারীর ক্ষমতায়নে সবচেয়ে বড় অসুবিধা হলো শিক্ষা। বাল্যবিবাহ ও নারীদের ওপর অনাচার বন্ধ করতে হবে।’

বক্তব্য রাখছেন সংসদ সদস্য মমতাজ বেগম। ছবি: ইত্তেফাক

এ সময় সংসদ সদস্য মমতাজ বেগম বলেন, ‘নারীর ক্ষমতায়নে বিশ্বের রোল মডেল বাংলাদেশ। আমার রোল মডেল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি নারীর ক্ষমতায়নে কাজ করে যাচ্ছেন। তার অনুপ্রেরণা নিয়ে নারীরা এগিয়ে যাচ্ছি। নারীরা এখন মানুষের সেবা করছে, সমাজের সেবা করছে, দেশের সেবা করছে।’

ইত্তেফাক/এসকে/এএএম