বৃহস্পতিবার, ৩০ মার্চ ২০২৩, ১৫ চৈত্র ১৪২৯
দৈনিক ইত্তেফাক

অস্ত্রোপচারে পেট থেকে বের হলো মদের বোতল

আপডেট : ১১ মার্চ ২০২৩, ১০:২০

প্রচণ্ড পেটব্যথার কারণে চিকিৎসকের কাছে যান এক ব্যক্তি। ব্যথার কারণ শনাক্তে চিকিৎসক তাকে শারীরিক পরীক্ষা করাতে বলেন। প্রতিবেদনে দেখা যায়, ওই ব্যক্তির পেটের ভেতরে রয়েছে আস্ত একটি মদের বোতল। অবাক করা এই ঘটনা ঘটেছে নেপালে। 

দেশটির রাউতাহাত জেলার গুজরা পৌরসভার বাসিন্দা নুরসাদ মানসুরি(২৬) । প্রচণ্ড পেটব্যথা নিয়ে তিনি স্থানীয় এক হাসপাতালে ভর্তি হন। পরবর্তিতে পরীক্ষা-নিরিক্ষার মাধ্যমে জানা যায়, পেটের ভেতরে থাকা মদের বোতলের জন্য প্রচণ্ড পেটব্যথায় ভুগছেন তিনি। গতকাল শুক্রবার প্রায় আড়াই ঘণ্টা ধরে নুরসাদের অস্ত্রোপচার করা হয় বলে জানিয়েছে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম। এর পাঁচ দিন আগে প্রচণ্ড পেটব্যথা নিয়ে তিনি স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি হন।

নুরসাদের অস্ত্রোপচারের সঙ্গে সম্পৃক্ত এক চিকিৎসক সংবাদমাধ্যমকে জানান, আস্ত একটি মদের বোতল পেটে নিয়ে ঘুরছিলেন নুরসাদ। এ জন্য পেটে ব্যথা ছিল তার। বোতলটি তার অন্ত্র ক্ষতিগ্রস্ত করে। অস্ত্রোপচারের পর এখন নুরসাদ শঙ্কামুক্ত।

কিন্তু একটি মদের বোতল কীভাবে নুরসাদের পেটের ভেতর গেল, এ প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। অবাক করা এ ঘটনা পুলিশ পর্যন্ত গিয়েছে। কারণ খুঁজতে মাঠে নেমেছে পুলিশ। চলছে তদন্ত। তবে প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিশের ধারণা, মদের আসরে হয়তো বন্ধুরা নুরসাদের সঙ্গে এমন কাণ্ড করেছেন। মাতাল করে জোরপূর্বক নুরসাদের মলদ্বার দিয়ে মদের বোতলটি ঢোকানো হয়েছে।

এ সন্দেহ থেকে পুলিশ নুরসাদের বন্ধুদের জিজ্ঞাসাবাদ করছে। সন্দেহভাজন হিসেবে শেখ শামিম নামের একজনকে আটক করেছে পুলিশ। শামিম নুরসাদের বন্ধু। এ বিষয়ে রাউতাহাতের পুলিশ সুপারিনটেনডেন্ট বীরবাহাদুর বৌদ্ধ বলেন, ‘ঘটনাটি নিয়ে আমরা তদন্ত চালিয়ে যাব। শামিমসহ নুরসাদের সব বন্ধুকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।’

ইত্তেফাক/এফএস