শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

ইপিএলের হল অফ ফেমে ভূষিত দুই কিংবদন্তি কোচ

আপডেট : ৩০ মার্চ ২০২৩, ১২:৩১

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের (ইপিএল) প্রথমবারের মতো হল অব ফেমে ভূষিত হলেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও আর্সেনালের সাবেক দুই কিংবদন্তি কোচ অ্যালেক্স ফার্গুসন আর আর্সেন ওয়েঙ্গার।

১৯৯০ এর দশকে শুরু হওয়া তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ শিরোপার লড়াইয়ে এই দুই ব্যক্তি ইপিএলের ১৬টি শিরোপা জয় করেছেন। ৮১ বছর বয়সী ফার্গুসনকে প্রিমিয়ার লিগের ইতিহাসে সবচেয়ে সফল কোচ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। তার তত্ত্বাবধানে ইউনাইটেড ১৩টি শিরোপা জয় করেছে।

অন্যদিকে আর্সেনালের হয়ে ৩টি লিগ শিরোপা জয় করেছেন ওয়েঙ্গার। তন্মাধ্যে ২০০৩/০৪ মৌসুমের শিরোপাটি ছিল অপরাজিত। 

দীর্ঘ ২৬ বছরেরও বেশি সময় ধরে ইউনাইটেডের কোচের দায়িত্ব পালন করা ফার্গুসন ১৯৯২/৯৩ মৌসুমে প্রিমিয়ার লিগের প্রথম মৌসুমের শিরোপা জয় করেন। ১৯৬৭ সালের পর এটি ছিল রেড ডেভিলদের প্রথম লিগ শিরোপা।

ইতোমধ্যে ফার্গুসনের ছয় শিষ্য প্রিমিয়ার লিগের হল অফ ফেমে জায়গা পেয়েছেন। এরা হলেন ডেভিড বেকহাম, এরিক ক্যান্টোনা, রয় কিন, ওয়েন রুনি, পিটার স্মাইকেল ও পল স্কোলস। 

১৩টি শিরোপা জয়ের পর ২০১৩ সালে অবসরে যাওয়া ফার্গুসন বলেন, ‘এই ধরনের স্বীকৃতি সব সময়ই গৌরবের। এটি একজন ব্যক্তি হিসেবে শুধু আমি নই, বরং এটি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে কাজের স্বীকৃতি এবং বছরের পর বছর ধরে গড়ে তোলা বন্ধনের স্বীকৃতি। আমি  ক্লাব, স্টাফ এবং এর খেলোয়াড়দের নিয়ে গর্বিত।’

এদিকে, প্রিমিয়ার লিগের প্রথম বিদেশি কোচ হিসেবে ১৯৯৬ সালে আর্সেনালে যোগ দেন ওয়েঙ্গার। যেখানে ২০১৮ সাল পর্যন্ত কাটিয়েছেন তিনি। এসেই আগ্রাসী ফুটবল দর্শন বাস্তবায়ন করেছেন তিনি। 

আকর্ষনীয় আক্রমনাত্মক ফুটবলে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ এই ফরাসি কোচ ১৯৯৭/৯৮ মৌসুমে ইপিএল শিরোপা জয় করেন। স্কাউটিংয়ের মাধ্যমে দেশ বিদেশ থেকে মেধাবী সংগ্রহের জন্য বিখ্যাত ওয়েঙ্গারের মূল কৌশল ছিল রদবদল। হল অফ ফেমের সদস্যপদ পাওয়া তার দুই গুরুত্বপূর্ন শিষ্য থিয়েরি অঁরি ও প্যাট্রিক ভিয়েরা।

বর্তমানে ফিফার ফুটবল ডেভেলপমেন্টের প্রধানের দায়িত্বে থাকা ৭৩ বছর বয়সী ওয়েঙ্গার বলেন, ‘স্যার অ্যালেক্সের সঙ্গে এমন স্বীকৃতির অংশীদার হওয়াটা দারুণ সম্মানের।’

ইত্তেফাক/এসএস

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন