বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

স্ত্রীকে সাপের কামড়, বস্তাবন্দি অজগর নিয়ে হাসপাতালে যুবক

আপডেট : ২০ এপ্রিল ২০২৩, ১০:২৯

স্ত্রীকে কামড়ায় অজগর সাপ। সঙ্গে সঙ্গে অজগরকে বস্তায় ভরেন যুবক। আর সেই সাপ নিয়ে হাসপাতালে হাজির হন তিনি। এদিকে হাসপাতালে বস্তার মধ্যে অজগর দেখে শুরু হয়ে যায় হুলস্থূল কাণ্ড।

সম্প্রতি এমনই এক ঘটনা সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। আর ওই ব্যক্তির হাসপাতালে সাপ নিয়ে যাওয়ার কারণ জেনে তাজ্জব হয়ে গিয়েছেন সকলে। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের উন্নাওয়ের জেলা হাসপাতালে। উন্নাওয়ের সফিপুর কোতোয়ালি এলাকার আয়ওয়া গ্রামের বাসিন্দা নরেন্দ্র সম্প্রতি এক অদ্ভূত কাণ্ড ঘটান।

গত শনিবার রাতে রান্নাঘরে কাজ করার সময়ে তার স্ত্রী কুসুমকেকে অজগর সাপ কামড়ায়। আতঙ্কিত হয়ে কুসুম চিৎকার করে ওঠেন এবং কিছুক্ষণের মধ্যেই তিনি জ্ঞান হারান। কুসুমের চিৎকার শুনে ঘটনাস্থলে ছুটে যায় পরিবারের বাকি সদস্যরা। স্থানীয়দের সহযোগিতাতেই কুসুমকে জেলা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়।

কিন্তু আশ্চর্যজনকভাবে স্ত্রীর বিষয়ে খবর পেয়ে প্রথমেই তাকে দেখতে যাননি নরেন্দ্র। বরং তিনি এক অন্য কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। স্ত্রীর খবর শুনে তড়িখড়ি বাড়ি এসে তিনি সেই সাপটিকে ধরেন এবং বস্তায় ভরে নিয়ে যান হাসপাতালে। এদিকে বস্তার মধ্যে অজগর দেখে স্বাভাবিকভাবেই হইচই পড়ে যায় হাসপাতালে। কিন্তু স্ত্রীকে দেখতে না এসে কেনই বা তিনি সাপ ধরতে ছুটলেন সেই প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছিল সকলের মনে। যার কারণ হিসাবে নরেন্দ্র যা ব্যাখ্যা করেন তাতেই চমকে যান সকলে। আসলে ওই যুবক জানান, তিনি চেয়েছিলেন যে সাপ তার স্ত্রীকে কামড়েছিল সেই সাপকে চিহ্নিত করেই যেন তার স্ত্রীর চিকিৎসা করা হয়।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তুষার চৌরাসিয়া যখন যুবকের কাছ থেকে জানতে চান যে তার স্ত্রীকে কোন সাপ কামড়েছে, সেই সময় সোজা বস্তা খুলে অজগরটিকে দেখান তিনি। ওই যুবকের স্ত্রীর হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে। বর্তমানে তিনি সুস্থ রয়েছেন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। ডাক্তারকে দেখানোর পর ওই অজগরটিকে জঙ্গলে ছেড়ে দেন যুবক।

ইত্তেফাক/এসজেড