বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

হোয়াটসঅ্যাপে ভয়েস নোট পাঠানোর দুর্দান্ত ফিচার 

আপডেট : ০৮ জুলাই ২০২৩, ২৩:১৪

দৈনন্দিন যোগাযোগে বিপ্লব এনেছে হোয়াটসঅ্যাপ। ব্যক্তিগত যোগাযোগ হোক অথবা অফিসের কাজে, আজকাল সব সময় হোয়াটসঅ্যাপ-কেই বেছে নেওয়া হয়। 

বিশেষ করে এই মেসেজিং অ্যাপের ভয়েস নোট ফিচার দ্রুত কথোপকথনে সাহায্য করে। স্মার্টফোনে ভয়েস নোট শুনতে শুনতে চাইলে তা পজ করার অপশন পাওয়া যায়। কিন্তু এতদিন কম্পিউটার থেকে এই ফিচার ব্যবহার করা যেত না। এবার উইন্ডোজ বেটা ভার্সনেও এই ফিচার আসতে চলেছে। সম্প্রতি ডব্লিউএবিইনফো ওয়েবসাইটে প্রকাশিত রিপোর্টে জানানো হয়েছে, উইন্ডোজ বেটা অ্যাপে এবার ভয়েস নোট প্লে পজ করার সুবিধা আসছে। মাইক্রোসফট স্টোর থেকে হোয়াটসঅ্যাপ বেটা ভার্সন ২.২২২৩.১১.৭০ আপডেট ইনস্টল করলে এই ফিচার ব্যবহার করা যাবে। এছাড়াও সম্প্রতি একাধিক প্রাইভেসি ফিচার নিয়ে হাজির হয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ। 

এতদিন পর্যন্ত হোয়াটসঅ্যাপ-এর প্রাইভেসি অপশনে লাস্ট সিন অপশন রয়েছে। অর্থাত্ কে কে আপনার লাস্ট সিন দেখতে পারবে তা নির্ধারণ করতে পারবে আপনি। কিন্তু এবার ওই ফিচারে একাধিক আপডেট আনা হবে। এবার থেকে আপনি চাইলে হোয়াটসঅ্যাপ-এ নিজের অনলাইন স্ট্যাটাস নাও দেখাতে পারেন। অর্থাত্ আপনি যদি হোয়াটসঅ্যাপ-এ অন রাখেন তাহলে আপনার নামের নীচে অনলাইন অপশন দেখা যাবে। কিন্তু এবার থেকে আপনি যদি চান ওই অনলাইন স্ট্যাটাস বন্ধ রাখতে পারবেন। যদিও পুরো বিষয়টি এখনও ডেভেলপমেন্ট স্তরে রয়েছে। এই বিষয়টি জানিয়েছে ডব্লিউএবিইনফো। একটি ব্লগ পোস্ট করা হয়েছে। সেই ব্লগপোস্টে এই সংক্রান্ত খবর প্রকাশ করা হয়েছে। এদিকে ব্যবহারকারীর অ্যাকাউন্ট প্রায়ই নিষিদ্ধ করে হোয়াটসঅ্যাপ। 

প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, গাইডলাইন না মেনে চলায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সব অ্যাকাউন্টগুলি চলতি বছরের মে মাসে বন্ধ করা হয়েছে শুধু এখনই নয়, এর আগেও একাধিকবার অ্যাকাউন্ট ব্যান করেছে হোয়াটসঅ্যাপ। এবং প্রতি মাসের শেষে এই সংক্রান্ত বিভিন্ন রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়। সম্প্রতি মে মাসের জন্য একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছে তারা। সেই রিপোর্টে এই বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হয়েছে। প্রতারণা, অন্য কোনও ব্যবহারকারীকে বিরক্ত, অনৈতিক কাজকর্ম ইত্যাদি অভিযোগ যে সব অ্যাকাউন্টের বিরুদ্ধে জমা পড়ে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয় হোয়াটসঅ্যাপ। এক্ষেত্রেও ঠিক একই ভাবে দেখার পর অ্যাকাউন্ট ব্যান করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

ইত্তেফাক/এআই