বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

কাফনের কাপড় পরে সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবি

আপডেট : ১৬ জুলাই ২০২৩, ১০:২৯

কাফনের কাপড় পরে অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও হয়রানিমুক্ত নির্বাচনের দাবি জানিয়েছেন কুমিল্লার দেবিদ্বার পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আবুল কাশেম।

নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা নির্বাচনী পরিবেশ সুষ্ঠু না করলে এবং নিরপেক্ষ দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে ভোটারদের নির্বিঘ্নভাবে ভোট দেওয়ার সুযোগ সৃষ্টি না করলে তিনি আত্মহত্যা করবেন। এমন পরিস্থিতির জন্য স্থানীয় এমপি, প্রশাসন ও থানার ওসিকে দায় নিতে হবে। এসময় তিনি থানার ওসির প্রত্যাহারের দাবি জানান।

শনিবার (১৫ জুলাই) বিকালে দেবিদ্বার পৌর এলাকায় সাংবাদিক সম্মেলন করে এমন হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন নারিকেল গাছ প্রতীকের এই মেয়র প্রার্থী। তিনি দেবিদ্বার পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন। নৌকার বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় দল থেকে তাকে বহিষ্কার করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করে স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. আবুল কাশেম বলেন, তার জনপ্রিয়তা দেখে নৌকার প্রার্থী ও দলের কিছু নেতা বেপরোয়া হয়ে ওঠেছে। ভোট কিনতে টাকার ছড়াছড়ির অভিযোগও করেন তিনি। এছাড়া তার কর্মী-সমর্থকদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে হুমকি-ধমকিসহ পুলিশের মাধ্যমে নানাভাবে হয়রানি করা হচ্ছে। স্থানীয় এমপি নির্বাচনী এলাকায় অবস্থান করে দলের প্রার্থীর পক্ষে প্রভাব খাটাচ্ছেন এবং নির্বাচনী পরিবেশ নষ্ট করছেন বলেও তিনি অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, এর আগে সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে দেবিদ্বার থানার ওসিকে প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ করা হলেও কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। এ অবস্থায় সুষ্ঠু ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের পরিবেশ নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেন এই প্রার্থী।

এদিকে মেয়র পদে একই দলের আরেক বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থী ক্যারামবোর্ড প্রতীকের এম এ কাইয়ুম ভূঁঞা পৃথক সাংবাদিক সম্মেলন করে সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেন।

তিনি অভিযোগ করে, নৌকার প্রার্থীর পক্ষে স্থানীয় এমপি, প্রশাসন, পুলিশ ও নির্বাচনসংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা একাট্টা হয়ে কাজ করছেন। তার কর্মী-সমর্থকদের নানাভাবে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। প্রচার-প্রচারণায় বাধা দেওয়া হচ্ছে। সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের জন্য তিনি নির্বাচন কমিশনের হস্তক্ষেপের দাবি জানান।

উভয় স্বতন্ত্র প্রার্থীর অভিযোগ অস্বীকার করে দেবিদ্বার থানার ওসি কমল কৃষ্ণ ধর বলেন, অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ বজায় রাখতে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। পুলিশের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ সঠিক নয়।

এ বিষয়ে কথা বলতে স্থানীয় এমপি রাজি মোহাম্মদ ফখরুলের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যায়নি।

ইত্তেফাক/এমএএম