বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

এবার কানাডার কূটনীতিকদের সংখ্যা কমাতে চায় ভারত

আপডেট : ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১৮:১৭

ভারতীয় বিষয়ে কানাডিয়ান কূটনীতিকদের হস্তক্ষেপের কথা উল্লেখ করে দেশটিতে কূটনৈতিক উপস্থিতি কমানোর আহ্বান জানিয়েছে দিল্লি। কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো খালিস্তান আন্দোলনের নেতা হত্যার সঙ্গে ভারত জড়িত থাকার অভিযোগের পরে দুই দেশের মধ্যে কূটনৈতিক দ্বন্দ্ব বাড়তে থাকে। এরই মধ্যে ভারতীয় সরকার বুধবার এই মন্তব্য করেছে।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, ইতোমধ্যে ভারত কানাডায় ভিসা পরিষেবা স্থগিত করেছে। এর কারণে সম্ভাব্যভাবে ভারত ভ্রমণে ইচ্ছু্ক পর্যটকদের ওপর প্রভাব পড়তে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচি বলেছেন, ‘ভারতে কানাডার কূটনৈতিক উপস্থিতি ভারতের যা আছে তার চেয়ে বেশি এবং সেই অনুযায়ী কমানো দরকার। আমরা কানাডা সরকারকে জানিয়েছি যে কূটনৈতিক উপস্থিতিতে সমতা থাকা উচিত, তাদের সংখ্যা অনেক বেশি। এখানে থাকা কানাডিয়ান কূটনীতিকের সংখ্যা কানাডায় থাকা আমাদের কূটনীতিকদের তুলনায় অনেক বেশি... আমার ধারণা সেখানেও হ্রাস পাবে।’

জুন মাসে কানাডার ভ্যাঙ্কুভারের কাছে খালিস্তানপন্থি নেতা হরদীপ সিং নিজ্জার হত্যায় ভারতীয় এজেন্টদের ভূমিকা ছিল বলে জাস্টিন ট্রুডোর অভিযোগ করেন। এরপরেই শুরু হয় কূটনীতিক দ্বন্দ্ব। ভারত এই অভিযোগকে ‘অযৌক্তিক ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত’ বলে অভিহিত করেছে। এর পরেই কূটনৈতিক বহিষ্কার করা হয়।

ভারত কানাডায় ভিসা আবেদন স্থগিত করার বিষয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ‘নিরাপত্তা হুমকি’ উল্লেখ করেছে তাদের কর্মকর্তাদের কাজকে ‘ব্যহত’ করার অভিযোগ করেছে। মুখপাত্র বলেছেন, নিরাপত্তা পরিবেশের কারণে মিশনের কর্মীরা ভিসা কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারেনি। আপাতত, কানাডার নিরাপত্তা পরিস্থিতি এবং কানাডা সরকারের নিষ্ক্রিয়তার কারণে, আমরা সাময়িকভাবে ভিসা পরিষেবা বন্ধ করে দিয়েছি।

ইত্তেফাক/এসএটি