বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

ভিয়েনায় 'মুজিব-একটি জাতির রূপকার’ দেখে আবেগপ্রবণ প্রবাসীরা

আপডেট : ২৩ নভেম্বর ২০২৩, ১৭:৪৩

বাংলাদেশ-ভারত যৌথ প্রযোজনায় এবং খ্যাতিমান পরিচালক শ্যাম বেনেগাল পরিচালিত জাতির পিতাকে নিয়ে নির্মিত অনন্য চলচ্চিত্র ‘মুজিব: একটি জাতির রূপকার’ ছবির প্রদর্শন চলছে অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনার 'গ্যাসোমিটার কিনো'-তে।

মঙ্গলবার (২১ নভেম্বর ২০২৩) সন্ধ্যায় 'গ্যাসোমিটার কিনো'-এর স্ক্রিনে সিনেমাটি দেখেন, বাংলাদেশ দূতাবাস ও স্থায়ী মিশন ভিয়েনার মান্যবর রাষ্ট্রদূত আসাদ আলম সিয়াম, কাউন্সেলর মো. তারাজুল ইসলাম, সহকারী কনস্যুলার কর্মকর্তা জুবায়দুল হক চৌধুরী, সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সভাপতি অষ্ট্রিয়া প্রবাসী মানবাধিকার কর্মী, লেখক, সাংবাদিক এম. নজরুল ইসলাম, অস্ট্র্রিয়া আওয়ামী লীগের সভাপতি খন্দকার হাফিজুর নাসিম, সহ-সভাপতি রুহী দাস সাহা, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান শ্যামল, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক শাহ কামাল, অস্টিয়া বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি রবিন মোহাম্মদ আলী, অস্ট্র্রিয়া আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি নয়ন হোসেন, অস্ট্রিয়া আওয়ামী লীগ নেতা প্রতাব কুমার মন্ডল, শফিকুর রহমান বাবুল, রতন সাহা, সাইফুল ইসলাম জসিম, আবদুর রব, ইমরুল কায়েস, আমিনুল ইসলাম কাঞ্চন, সাহাবুদ্দিন সাবু, মোতাহার হোসেন, বিপ্লব সাহা, মিসবাহুল আরিফ বাবু, মনির হোসেন, মোহাম্মদ রুবেল, নুসরাত সুলতানা মিষ্টি, সুচনা সিমন, রেনেসা মনির প্রমুখ।

‘মুজিব-একটি জাতির রূপকার’ চলচ্চিত্রটি দেখার পর অনুভূতি প্রকাশকালে রাষ্ট্রদূত আসাদ আলম সিয়াম বলেন, 'জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনীনির্ভর সিনেমা ‘মুজিব: একটি জাতির রূপকার’ মুক্তির আগে থেকেই জাতির পিতাকে সিনেমার পর্দায় দেখার অপেক্ষায় ছিলাম। অবশেষে সেই অপেক্ষার শেষ হয়েছে। সিনেমাটি সবার দেখা উচিত।'

সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সভাপতি এম. নজরুল ইসলাম বলেন, 'বঙ্গবন্ধুর কত ত্যাগ-তিতিক্ষার বিনিময়ে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে, সেটি এই চলচ্চিত্রে নির্মোহভাবে তুলে ধরা হয়েছে। ইতিহাসের সত্য ঘটনা এই চলচ্চিত্রে ফুটে উঠেছে। নতুন প্রজন্মের সবার এই চলচ্চিত্রটি দেখা উচিত।'

ইত্তেফাক/এআই