বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

ব্র্যাডম্যান ও কোহলির পাশে উইলিয়ামসন

আপডেট : ৩০ নভেম্বর ২০২৩, ১২:১৪

বর্তমানে ক্রিকেট বিশ্বের যে কজন ঠান্ডা মেজাজের ব্যাটার আছেন, তাদের নিয়ে একটি তালিকা করলে প্রথম সারিতে থাকবে নিউজিল্যান্ডের ব্যাটার কেন উইলিয়ামসনের নাম। ক্রিকেটের যে ফরম্যাটই হোক না কোন, ব্যাট হাতে ধারাবাহিকতা দেখা যায় এই ব্যাটারের। যেমনটি দেখা গিয়েছিল চলতি মাসেই শেষ হওয়া ওয়ানডে বিশ্বকাপে। এবার বাংলাদেশে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজ খেলতে এসে প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসেই তিনি দেখিয়েছেন তার ব্যাটিং প্রদর্শন। খেলেছেন শত রানের ইনিংস, যার মাধ্যমে তিনি আভিজাত্যের এই ফরম্যাটে ছুঁয়ে ফেলেছেন কিংবদন্তি ব্যাটার স্যার ডন ব্র্যাডম্যান ও বিরাট কোহলিকে।

গতকাল সিলেট টেস্টের দ্বিতীয় দিন বাংলাদেশের বিপক্ষে ব্যাট হাতে ১০৪ রানের ইনিংস খেলেন উইলিয়ামসন। এটি তার টেস্ট ফরম্যাটে ২৯তম শত রানের ইনিংস। আর তাতেই কিউই এই ক্রিকেটার ছুঁয়ে ফেললেন সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ ব্যাটসম্যান স্যার ডন ব্র্যাডম্যান এবং বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলিকে। ৯৯.৯৪ গড় নিয়ে ক্রিকেটকে গুডবাই বলা ব্র্যাডম্যান ৫২ টেস্টে ২৯ সেঞ্চুরি পেয়েছিলেন। ভারতের বিরাট কোহলি ১১১ টেস্টে পেয়েছেন ২৯তম টেস্ট সেঞ্চুরি। সেখানে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ৯৫তম টেস্ট খেলতে নেমে উইলিয়ামসন তাদের পাশে নিজেকে বসিয়ে নিলেন।

এদিকে চলতি বছর এটি তার দ্বিতীয় সেঞ্চুরি। গত মার্চে সবশেষ টেস্টে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তার ব্যাট থেকে এসেছিল ঝকঝকে ২১৫ রান। এছাড়া বাংলাদেশের বিপক্ষে এটি উইলিয়ামসনের চতুর্থ সেঞ্চুরি। চারটি ফিফটির ইনিংসও রয়েছে বাংলাদেশের বিপক্ষে। ৫৫.৫৮ গড়ে ক্যারিয়ার সাজানো উইলিয়ামসনের বাংলাদেশের বিপক্ষে গড় ১৩১। এখন পর্যন্ত ৭ টেস্টে ৯ ইনিংসে রান করেছেন ৭৮৬। ২০১৩ সালে প্রথম মুখোমুখিতেই সেঞ্চুরি পেয়েছিলেন চট্টগ্রামের মাটিতে। এরপর ২০১৭ সালে ওয়েলিংটনে দ্বিতীয় সেঞ্চুরিতে করেন ১০৪ রান। ছিলেন অপরাজিত। ২০১৯ সালে ঝকঝকে ২০০ রানের অপরাজিত ইনিংস। সিলেটে রানের ফোয়ারা ছুটিয়ে ১০৪ রানে তাইজুলের বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন তিনি।

বুধবার সিলেট টেস্টের দ্বিতীয়ে ব্যাট করতে নেমে ৩৬ রানে প্রথম উইকেট হারায় নিউজিল্যান্ড। ব্যক্তিগত ২১ রানে তাইজুল ইসলামের বলে নাঈম হাসানের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন কিউই ওপেনার টম ল্যাথাম। এরপর তৃতীয় উইকেটে ক্রিজে আসেন কেন উইলিয়ামসন। ক্রিকেট যে ধৈর্যের পরীক্ষা, সেই পরীক্ষায় ভালো রেজাল্ট করা ছাত্রের মধ্যে একজন উইলিয়ামসন। ২৮৯ মিনিট ক্রিজে থেকে ২০৫ বল খেলে করেন ১০৪ রান। যদিও উইলিয়ামসনের এই ইনিংসের পেছনে বাংলাদেশের ফিল্ডারদের ব্যর্থতার দায়ই বেশি। প্রথমটা ৬৩ রানে মিড উইকেটে তার সহজ ক্যাচ ছাড়েন তাইজুল ইসলাম। এরপর ৭১ রানে ব্যাকওয়ার্ড স্কয়ার লেগে একটু কঠিন ক্যাচ মিস করেন শরিফুল ইসলাম। এছাড়া গোটা ইনিংসেই নিজের আধিপত্য বজায় রেখেছিলেন তিনি।

ইত্তেফাক/জেডএইচ