বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

১৩৬০ শিক্ষার্থীর ‘বৃত্তি পরীক্ষা’ বন্ধ করলেন ইউএনও 

আপডেট : ০১ ডিসেম্বর ২০২৩, ২১:৪৮

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে ১৩৬০ শিক্ষার্থীর মেধার মূল্যায়ন ও বৃত্তি পরীক্ষা মাঝ পথে বন্ধ করে দিয়েছেন ইউএনও শারমিন আক্তার। শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) সকালে এ ঘটনা ঘটে।  

সরিষাবাড়ী উপজেলা কিন্ডারগার্টেন অ্যাসোসিয়েশন সূত্রে জানা যায়, ২০০৮ সাল থেকে মেধার মূল্যায়ন ও বৃত্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রতি বছরের মতো এবারও মেধার মূল্যায়ন ও বৃত্তি পরীক্ষার আয়োজন করা হয়। এ বছর উপজেলার ৪১টি কিন্ডারগার্টেনের ১ হাজার ৩৬০ জন শিক্ষার্থী অংশ নেয়। শুক্রবার দুটি উচ্চ বিদ্যালয়ে এ পরীক্ষার আয়োজন করা হয়। পৌর এলাকার সালেমা খাতুন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও পোগলদিঘা ইউনিয়নের বয়ড়া ইসরাইল আহাম্মদ উচ্চ বিদ্যালয়ে পরীক্ষা কেন্দ্র করেন উপজেলা কিন্ডারগার্টেন অ্যাসোসিয়েশন। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শারমিন আক্তার দুই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে ফোন দিয়ে পরীক্ষা বন্ধ করে দেন। 

এ বিষয়ে বয়ড়া ইসরাইল আহাম্মদ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শেখ মাহমুদ বলেন, ‌‘ইউএনও স্যারের আদেশে আমি পরীক্ষা বন্ধ করে দিয়েছি।’ 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন আক্তার বলেন, ‘এভাবে পরীক্ষা নেওয়ার কোন বিধিবিধান আমাদের কাছে নেই। তাই পরীক্ষা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।’ 

জেলা প্রশাসক শফিউর রহমান বলেন, ‘কিন্ডারগার্টেন অ্যাসোসিয়েশনের কোন অনুমোদন নেই। সকালে আমি এই পরীক্ষার বিষয়ে মোবাইলে অভিযোগ পাই। পরে পরীক্ষা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।’ 

ইত্তেফাক/পিও