শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

বরিশালে বিএনপির মানববন্ধনে পুলিশের বাধা

আপডেট : ১০ ডিসেম্বর ২০২৩, ২০:৩৯

বরিশালে আর্ন্তজাতিক মানবাধিকার দিবসে বিএনপির মানববন্ধন ছত্রভঙ্গ করে দিয়েছে পুলিশ। এ সময় দলটির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

আজ রোববার (১০ ডিসেম্বর) বেলা ১১টার দিকে নগরীর সদর রোডের অশ্বিনী কুমার হল সংলগ্ন জেলা ও মহানগর বিএনপির দলীয় কার্যালয়ে মানববন্ধন করতে আসেন সুপ্রিম কোর্ট বারের সদস্য অ্যাড. গোলাম মো. চৌধুরী আলালের নেতৃত্বে জেলা (উত্তর) বিএনপির সাবেক সভাপতি মেহবাহ উদ্দিন ফরহাদসহ অন্যান্য নেতারা। এ সময় পুুলিশ তাদের মানববন্ধনে বাধা দেয় পুলিশ। পরে দলীয় কার্যালয় থেকে বের হয়ে সদর রোডে মিছিল করতে গেলেও পেছন থেকে নেতাকর্মীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয় পুলিশ।

একই সময় বরিশাল জেলা (উত্তর ও দক্ষিণ) বিএনপি সদর রোডে মিছিল করে দলীয় কার্যালয়ে আসার চেষ্টা করলে তাদেরও বাধা দেয় পুলিশ। এ সময় নেতাকর্মীরা নগরীর বিবিপুকুর পূর্ব পাড় এলাকায় সংক্ষিপ্ত মানববন্ধন করেন।

বরিশালে বিএনপি নেতাকর্মীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয় পুলিশ। ছবি: ইত্তেফাক

মানববন্ধনে নেতার্মীরা জানান, ‘আর্ন্তজাতিক মানবাধিকার দিবসে আমাদের নির্ধারিত কর্মসূচি পালনের জন্য সদর রোডে আসার আগে পুলিশ বেআইনিভাবে আমাদের বাধা দিয়ে ব্যানার ছিনিয়ে নেওয়াসহ লাঠিচার্জ করে। সরকার আবারও পুলিশ দিয়ে আমাদের মানবতার অধিকার কেড়ে নিয়ে ফ্যাসিস্ট সরকারের পরিচয় দিয়েছে।’

মানববন্ধনে দক্ষিণ জেলা বিএনপির সদস্য সচিব আবুল কালাম শাহীন, জেলা আইনজীবী ফোরামের সভাপতি মহসিন মন্টুু, সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ উপস্থিত ছিলেন।

অন্যদিকে জেলা মহিলা দল নগরীর সদর রোডে মানববন্ধন করতে এলে তাদেরকেও সরিয়ে দেয় পুলিশ। এ বিষয়ে বিএনপি নেতাকর্মীরা অভিযোগ করেন, তারা মানববন্ধনের জন্য পুলিশকে জানিয়েছেন। কিন্তু তাদের অনুমতি দেওয়া হয়নি। বিএনপিকে দমনের জন্য নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে হামলা-মামলা করা হচ্ছে।

কোতয়ালী মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আমানুল্লাহ বলেন, ‘আজকে কোনো বিএনপিসহ বিরোধীদলের কর্মসূচি পালনের ক্ষেত্রে উপরমহলের নির্দেশ না থাকায় আমরা তাদেরকে কোনো কর্মসূচি পালন না করার অনুরোধ করে সরিয়ে দিয়েছি। সেই সঙ্গে বিএনপির মানববন্ধন কর্মসূচিকে ঘিরে যে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে নগরীর সদর রোডসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে।’

ইত্তেফাক/এইচএ