মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১
The Daily Ittefaq

নির্বাচনের মাধ্যমে সরকার গঠন করে অধিকার আদায় করতে হয়: আনোয়ার হোসেন মঞ্জু

আপডেট : ০৪ জানুয়ারি ২০২৪, ২২:৪৭

জাতীয় পার্টি-জেপি’র চেয়ারম্যান ও ১৪ দলীয় জোটের পিরোজপুর-২ আসনের নৌকার প্রার্থী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু বলেছেন, আমাদের ঐক্য ও স্বাধীনতার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র চলছে। স্বাধীন দেশে নির্বাচনের মাধ্যমে সরকার গঠন করে মানুষের অধিকার আদায় করতে হয়। দেশ স্বাধীন হয়েছে—এই স্বাধীনতার স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে সঠিক নেতৃত্ব থাকতে হবে। নির্বাচন বয়কট করে যারা দেশের সাংবিধানিক অধিকার নষ্ট করতে চায়—তারা ভুল পথে চলছেন। 

বৃহস্পতিবার (৪ ডিসেম্বর) পিরোজপুরের নেছারাবাদ (স্বরূপকাঠি) উপজেলার ইন্দুরহাট বন্দরের স্বরূপকাঠি কলেজিয়েট একাডেমি মাঠে এক নির্বাচনী পথসভায় এ কথা বলেন তিনি। 

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রচার-প্রচারণার শেষ দিনে উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত এই সভায় নৌকার পক্ষে ভোট চেয়ে তিনি আরও বলেন, এ নির্বাচন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। জনগণকে দলে দলে ভোটকেন্দ্রে এসে ভোট প্রয়োগ করে তার সাংবিধানিক অধিকার নিশ্চিত করা—এটি নাগরিক অধিকার। নৌকায় ভোট দিয়ে শেখ হাসিনার মনোনীত প্রার্থীদের নির্বাচিত করে তাকে পুনরায় প্রধানমন্ত্রী করতে হবে। আমাদের সুবিধা হলো—যতদিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকবেন ততদিন দক্ষিণাঞ্চলের উন্নয়ন হবে। তিনি ২০ বছর সরকারপ্রধানের দায়িত্ব পালন করায় দক্ষিণাঞ্চলসহ সারা বাংলাদেশের মানুষের ভাগ্য উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। উন্নয়নের পূর্বশর্ত হলো—ঐক্য। বিগত ৩৮ বছর আমি ভাণ্ডারিয়া-কাউখালী-ইন্দুরকানীসহ দক্ষিণাঞ্চলের এই ঐক্যের কথা বলে এসেছি। উন্নয়নের স্বার্থে ঐক্যকে এই স্বরূপকাঠিতেও প্রতিষ্ঠিত করতে হবে। 

তিনি আরও বলেন, আমি পানিসম্পদ মন্ত্রী থাকার সময় ভাণ্ডারিয়ার কাঁচ নদীতে ৬০০ কোটি ব্যয়ে নদীরক্ষা বাঁধ নির্মাণ করতে সক্ষম হয়েছি। দক্ষিণাঞ্চলসহ সারা বাংলাদেশে যোগাযোগ অবকাঠামগত ক্ষেত্রে যে উন্নয়ন সাধিত হয়েছে, তার প্রতিটির সঙ্গে আমাদের অংশগ্রহণ ছিল। আমরা বিশ্বব্যাংকসহ বিদেশি উন্নয়ন সহায়কদের সঙ্গে সম্পর্ক সৃষ্টি করে, কথা বলে—যে অর্থ সহায়তা আনতে পেরেছি, তার পিছনে ছিল আমাদের শিক্ষা, মেধা, বিদেশি বিভিন্ন ভাষায় কথা বলার সক্ষমতা। বর্তমান নির্বাচন দুই-একটি দল বর্জন করছে। আমরা দেশের প্রায় সব নির্বাচনে অংশ নিয়েছি। তবে ঐক্যবদ্ধভাবে একটি নির্বাচনে আমরা অংশ নেইনি। তখন সেই নির্বাচনটি নিয়ে দেশ-বিদেশে ব্যাপক বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছিল। একটি দল বাদে বাকি সব দল নির্বাচনটি বর্জন করেছিল। 

পথসভায় নেতাকর্মী ও সমর্থকদের একাংশ। ছবি : ইত্তেফাক

আনোয়ার হোসেন মঞ্জু আরও বলেন, নির্বাচনী মাঠে কোনো কোনো প্রার্থী ভয় দেখিয়ে, অর্থ বিলিয়ে ভোটে জিততে চান। রক্তচক্ষু দেখিয়ে মানুষের ভোট আদায় করার তাদের অপচেষ্টা—জনগণ প্রত্যাখ্যান করবে। আমরা স্বাধীনতা সংগ্রাম করেছি, তখন আজকের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও আমাদের সঙ্গে রাস্তায় ছিলেন। আজকে তার নেতৃত্বে দেশ গঠনে আমরা ঐক্যবদ্ধ। 

পথসভায় আগামী ৭ জানুয়ারির নির্বাচনে শেখ হাসিনা মনোনীত প্রার্থীদের নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে তার দেশ গড়ার প্রক্রিয়াকে এগিয়ে নিয়ে যেতে জনগণের প্রতি আহ্বান জানান আনোয়ার হোসেন মঞ্জু।  

ইত্তেফাক/ডিডি