সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

ব্রুনাইয়ের যুবরাজের জমকালো বিয়ে

আপডেট : ১৪ জানুয়ারি ২০২৪, ১৭:১৪

জমকালো আয়োজনের মাধ্যমে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন ব্রুনাইয়ের রাজপুত্র আব্দুল মতিন। কনে রাজপরিবারের কেউ নন বরং রাজপরিবারের বাইরের। নাম তার ইয়াং মুলিয়া আনিশা রোসনাহ। প্রিন্স মতিনের বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা চলবে ১০দিন ধরে। গত ৭ জানুয়ারি শুরু হয়েছে এই আনুষ্ঠানিকতা যা শেষ হবে আগামী মঙ্গলবার।

প্রিন্স মতিনের বিয়েতে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ সব সরকার প্রধান ও রাষ্ট্রপ্রধানরা। সেইসঙ্গে উপস্থিত থাকবেন বিশ্বের রাজ পরিবারের বিশিষ্ট অতিথিরা।

ছবি: এএফপি

মতিন (৩২) ও ইয়াং মুলিয়া আনিশা রোসনাহ (২৯) দম্পতি ব্রুনাইয়ের রাজধানী বন্দর সেরিবেগাওয়ানে একটি মিছিলের মাধ্যমে জনসমক্ষে আসবেন। এ সময় শহরভর্তী সাধারণ মানুষ উপস্থিত থাকবেন নব দম্পতিকে স্বাগত জানানোর জন্য।

জনপ্রিয় এই যুবরাজকে গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত এশিয়ার সবচেয়ে এলিজিবল ব্যাচেলর হিসেবে বিবেচনা করা হতো।

মতিনের বাবা ও ব্রুনাইয়ের সুলতান হাসানাল বলকিয়াহ বিশ্বের দীর্ঘতম রাজত্বকারী রাজা। তিনি একসময় বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি ছিলেন।

ছবি: এএফপি

সুলতানের প্রাসাদ থেকে এখনও চূড়ান্ত অনুষ্ঠানের অতিথি তালিকা প্রকাশ করা হয়নি। তবে এশিয়া, ইউরোপ ও মধ্য প্রাচ্যের রাজপরিবারের সদস্যরা অতীতে দেশটির রাজকীয় বিয়েতে আমন্ত্রণ পেয়েছিলেন।

প্রতিবেশী মালয়েশিয়ার সুলতান আবদুল্লাহ শাহ অনুষ্ঠানে থাকবেন বলে জানিয়েছেন।

কেনসিংটন প্যালেস প্রিন্স উইলিয়াম ও স্ত্রী ক্যাথরিন যোগ দেবেন না বলে জানানোর পরে ব্রিটিশ রাজপরিবারের প্রতিনিধি হিসেবে কারা বিয়েতে আসবেন তা এখনও জানানো হয়নি। একসময় ব্রুনাই ব্রিটেনের শাসনে ছিল।

প্রিন্স মতিন তার বাবার সঙ্গে গত বছরের মে মাসে রাজা চার্লস ও রানী ক্যামিলার রাজ্যাভিষেক এবং ২০২২ সালে রানি এলিজাবেথের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় গিয়েছিলেন।

ছবি: এএফপি

এদিকে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী আনোয়ার ইব্রাহিম, ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট জোকো উইদোদো সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রী লি সিয়েন লুংও তাদের উপস্থিতির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

প্রিন্স মতিন ব্রুনাইয়ের সশস্ত্র বাহিনীর একজন ব্রিটিশ-প্রশিক্ষিত সামরিক কর্মকর্তা এবং একজন হেলিকপ্টার পাইলট। তিনি গ্রাজুয়েশন সম্পন্ন করেছেন বৃটেনের রয়েল মিলিটারি একাডেমি স্যান্ডহার্স্ট থেকে।

ছবি: এএফপি

ব্রুনাইয়ের তথ্য অফিস বলেছে, দম্পতি তাদের সম্পূর্ণ রাজকীয় অনুষ্ঠানে ‘একটি মঞ্চে বসবে’। অনুষ্ঠানটি একটি ইসলামী রাজতন্ত্র হিসেবে ব্রুনাইয়ের শতাব্দী-প্রাচীন ইতিহাস থেকে গৃহীত ঐতিহ্যে পরিপূর্ণ।

১৭৮৮ কক্ষবিশিষ্ট রাজপ্রাসাদে এখন বইছে উৎসবের আমেজ। রোববার সেখানে আয়োজন করা হবে নয়নাভিরাম অনুষ্ঠানের। অনুষ্ঠানকে কল্পকাহিনীর মতো রূপ দেওয়া হবে। বিয়ের অনুষ্ঠান হবে ওমর আলি সাইফুদ্দিন মসজিদে।

ছবি: এএফপি

প্রিন্স মতিন রাজসিংহাসনে বসতে পারবেন কিনা তা অনিশ্চিত। তবে তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মানুষের কাছে হয়ে উঠেছেন ‘হট রয়েল’। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে তিনি আন্তর্জাতিক কূটনীতিতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রেখেছেন।

ইত্তেফাক/এসএটি