মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১
The Daily Ittefaq

গুলিস্তানে ট্রাফিক সচেতনতামূলক সভা অনুষ্ঠিত

আপডেট : ২৫ জানুয়ারি ২০২৪, ১০:৫৫

রাজধানীর ব্যস্ততম জায়গা গুলিস্তানের ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা উন্নতকরণে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ট্রাফিক-মতিঝিল বিভাগের উদ্যোগে ট্রাফিক সচেতনতামূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (২৪ জানুয়ারি) দুপুরে গুলিস্তানে মহানগর নাট্যমঞ্চের উন্মুক্ত প্রাঙ্গণে পরিবহন মালিক ও শ্রমিক নেতাদের নিয়ে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন ট্রাফিক-মতিঝিল বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (অতিরিক্ত ডিআইজি পদে পদোন্নতিপ্রাপ্ত) মোহাম্মদ মইনুল হাসান।

ট্রাফিক-মতিঝিল বিভাগের অন্তর্গত গুলিস্তান রাজধানীর অন্যতম একটি ব্যস্ততম স্থান। প্রতিদিন লাখ লাখ লোক এ এলাকায় যাতায়াত করে থাকেন। ফুটপাত ও রাস্তায় হকারের অবস্থান, আন্ডারপাস ব্যবহার না করে লোকজনের যত্রতত্র রাস্তা পারাপার, ফ্লাইওভার ব্যবহারকারী যানবাহনের তীব্র চাপ, ল্যান্ডিং স্থান ও গাড়ি ধারণ ক্ষমতা অপ্রতুল, সর্বোপরি ২৫ ব্যানারের প্রায় সহস্রাধিক গাড়ি নারায়ণগঞ্জ থেকে চলাচল, অযান্ত্রিক যানবাহনের সমাহার ইত্যাদি কারণে যানজট এখানে লক্ষণীয়।

সভায় ট্রাফিক-মতিঝিল বিভাগ ও ঢাকা সড়ক পরিবহনের যৌথ উদ্যোগে ৫০ জন ট্রাফিক কমিউনিটি পুলিশ অন্তর্ভুক্ত করা হয়। তারা ওই এলাকায় যান্ত্রিক ও অযান্ত্রিক যানবাহনের শৃঙ্খলা আনতে ট্রাফিক পুলিশকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করবে। তারা দৈনন্দিন দুই পালায় দায়িত্ব পালন করবেন। দায়িত্ব পালনের জন্য তাদের প্রত্যেককে ট্রাফিক-মতিঝিল বিভাগের পক্ষ থেকে একটি করে কমলা রঙের কমিউনিটি ট্রাফিক পুলিশ লেখা জ্যাকেট ও বাঁশি প্রদান করা হয়।

যানজট কমাতে সভায় কয়েকটি বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। এগুলো হলো-

  • অত্র এলাকায় গাড়ি যত্রতত্র রাখা যাবে না।
  • কোনোক্রমে বাম লেন বন্ধ করা যাবে না।
  • যাত্রী না থাকলে গাড়ি এক লেনেও রাখা যাবে না; গাড়ির চাকা ঘূর্ণায়মান থাকতে হবে যাতে পিছনে কেউ জ্যামে না পড়ে।
  • ফ্লাইওভার ল্যান্ডিং এ যাত্রী উঠানোর জন্য কিংবা নামানোর জন্য গাড়ি কোনক্রমেই থামানো যাবে না।
  • কোনক্রমেই গাড়ি ডাবল লেন করা যাবে না।
  • গাড়ি চালানোর সময় কোন অসুস্থ প্রতিযোগিতা করে কাউকে দুর্ঘটনায় নিপতিত করা যাবে না।
  • অত্র এলাকায় কোথাও এমনভাবে গাড়ী রাখা যাবে না যাতে ঐ গাড়ির জন্য অন্য একটি গাড়ির চলাচল বাধাগ্রস্ত হয়।
  • উল্টো দিক দিয়ে কোনো রিক্সা কোথাও গমন করবে না।
  • কারো সঙ্গে কোনো ধরনের অপেশাদার কিংবা খারাপ আচরণ প্রদর্শন করা যাবে না। 

 

সভায় ট্রাফিক-মতিঝিল বিভাগের বিভিন্ন পদমর্যাদার পুলিশ কর্মকর্তাগণ, পরিবহন মালিক ও শ্রমিক নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

ইত্তেফাক/এবি