রোববার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০
দৈনিক ইত্তেফাক

ইতিহাসে ‘সবচেয়ে বড় আপডেট’ আনছে অ্যাপল, বদলে যাবে আইফোনের চেহারা!

আপডেট : ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৭:২০

নতুন অপারেটিং সিস্টেম ‘আইওএস ১৮’ নিয়ে আসতে চলেছে এখন পর্যন্ত অ্যাপল আইফোনের ‘সবচেয়ে বড়’ আপডেট। সবচেয়ে বড় না হলেও এই টেক জায়ান্ট ‘আইওএস-১৮’-কে ইতিহাসের অন্যতম বড় আপডেটগুলোর একটি হিসেবে দেখছে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্য সংবাদ সাইট ব্লুমবার্গের প্রতিবেদক মার্ক গারম্যান। প্রতি জুনে অনুষ্ঠিত নিজস্ব সম্মেলন ‘ওয়ার্ল্ড ডেভেলপারস কনফারেন্সে’ আইফোনের নতুন আপডেট উপস্থাপন করে থাকে অ্যাপল। পরবর্তীতে, নতুন আইফোনের সঙ্গে সেপ্টেম্বরে এটি প্রকাশ পায়।

কোম্পানিটি দীর্ঘদিন ধরে নতুন অপারেটিং সিস্টেমের জন্য বড় পরিসরের এআই আপডেট নিয়ে কাজ করছে বলে গুজব ছিল। এতে ডিজিটাল সহকারী ‘সিরি’-এর আরো ভালো সংস্করণ; ‘অ্যাপল মিউজিক’-এর জন্য প্লেলিস্ট তৈরি করবে এমন নতুন এআই; এবং ‘কিনোট’, ‘মেসেজেস’ ও ‘এক্সকোড’-এর মতো অ্যাপগুলোতে এআই অ্যাসিস্ট্যান্ট টুল যোগ করা হবে বলে উঠে এসেছে ব্রিটিশ দৈনিক ইন্ডিপেন্ডেন্টের প্রতিবেদনে।

পূর্বের প্রতিবেদন অনুসারে, ‘সিরি’র নতুন সংস্করণে একটি লার্জ ল্যাঙ্গুয়েজ মডেল থাকবে। উদাহরণ হিসেবে, জটিল সব কাজ করতে বলা হলে এখন স্বয়ংক্রিয়ভাবেই করে ফেলতে পারবে এটি। অ্যাপল অনেকদিন ধরেই আইওএস এবং অন্যান্য সফটওয়্যারে এআই ফিচার যোগ করেছে। তবে, ‘চ্যাটজিপিটি’ প্রযুক্তি খাতে নতুন উত্তেজনা সৃষ্টি করার পর থেকে নতুন কোনো বড় পরিবর্তন আনেনি অ্যাপল। এ ছাড়া, সাম্প্রতিক আয়োজনে কোম্পানিটি ‘এআই’ শব্দটি একেবারে ব্যবহারই করেনি বলে প্রতিবেদনে লিখেছে ইন্ডিপেন্ডেন্ট।

এআই টুলের সঙ্গে সম্ভবত নতুন টেক্সটিং ফিচার বা মেসেজ পাঠানোর নতুন মাধ্যম ‘আরসিএস’ চালু করবে অ্যাপল। গত বছরেই এ ঘোষণা দিয়েছিল কোম্পানিটি।

‘আরসিএস’ একটি সমৃদ্ধ টেক্সট মেসেজিং ফিচার। তবে, এর বেশিরভাগ ফিচার এতদিন কেবল ‘আইমেসেজ’ অ্যাপেই সীমাবদ্ধ ছিল। ফিচারগুলোর মধ্যে রয়েছে, উঁচু রেজল্যুশনসম্পন্ন ছবি আদানপ্রদান করা, কেউ টাইপ করার সময়ে তা বুঝতে পারা বা শুধুমাত্র ওয়াইফাই ব্যবহার করেই ফোন থেকে এসএমএস পাঠানোর মতো সুবিধা। অ্যাপল নতুন আইওএস-১৮’এ কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তি ব্যবহার করতে পারে—সামসাং এর সম্প্রতি লঞ্চ হওয়া গ্যালাক্সি এস২৪ সিরিজ এবং গুগল পিক্সেল ৮ সিরিজের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে। মার্কের মতে, অ্যাপল তার অন্যান্য অ্যাপ যেমন অ্যাপল মিউজিক, পেজ, কীনোট এবং এক্সকোড-এ একই এই  ফিচার ব্যবহার করতে পারে।

ইত্তেফাক/এএইচপি

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন